হামাগুড়ি দিয়ে মরুভূমি পাড়ি দেবেন মুসা ইব্রাহীম

পল্লব মহামহিম, ত্রিপলি (লিবিয়া) থেকে | তারিখ: ১০-০৩-২০১১

যেমন ভাবা হয়েছিল তেমন শান্ত ছিল না সাহারা মরুভূমি। জোর বাতাস আর বালুঝড় ছিল মাঝেমধ্যেই। থেকে থেকে দেখা যাচ্ছিল দুই হামাগুড়ুর মাথা আর পায়ের ফিন। কখনো পুরো শরীর, যেন দ্রুতগতির মরুর জাহাজ।

এভাবেই গতকাল বুধবার লিবিয়ার ত্রিপলি থেকে আবু লাহাব পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ১৪ কিলোমিটার মরুভূমি পাড়ি দিয়েছেন দেশের প্রথম এভারেস্ট বিজয়ী পর্বতারোহী মুসা ইব্রাহীম ও সাঁতারু লিপটন সরকার। লিপটন আগে সাগরে সাঁতার কাটলেও মরুভূমিতে হামাগুড়ি এ-ই প্রথম।

সাকিবের পর এবার আঙুল দেখালেন মুসা

দুপুর ১২টার কিছু পরে ত্রিপলি থেকে শুরু হয় সাহারা মরুভূমি হামাগুড়ি ২০১১ নামের এই অভিযান। লিপটন পথটা অতিক্রম করেছেন চার ঘণ্টা ১৫ মিনিটে। আর মুসার সময় লাগে চার ঘণ্টা ৫৭ মিনিট। শুরুর দুই ঘণ্টা পর পায়ের পেশিতে টান ধরায় ফজলুল কবির সিনা শেষ করতে পারেননি।

হামাগুড়ি শেষে মুসা ইব্রাহীম বলেন, ‘এটা একটা চ্যালেঞ্জ ছিল। চ্যালেঞ্জ জয়ে আমরা সফল হয়েছি। হামা দিতে খুব বড় কোনো সমস্যা হয়নি। শুধু মাঝপথে আমার অক্সিজেন পাইপটা ফুটা হয়ে গিয়েছিল।’

লিপটন বলেন, ‘আমি প্রতিবছরই সাহারা মরুভূমি হামাগুড়ি দিয়ে পার হতে চাই। এবার মুসার সঙ্গে হামাগুড়িতে অংশ নেওয়ার অভিজ্ঞতা স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তবে আর কখনও তার সাথে একসঙ্গে হামা দিতে নামবো না। একটু পর পর এসে বলে, ভাই আমার অক্সিজেন পাইপটা ফুটা হয়ে গেছে বুজায় দ্যান।’

আবু লাহাবে অপেক্ষমান উদ্বাস্তু ও স্থানীয় মানুষ ছাড়াও দুই হামাগুড়ুকে অভিনন্দন জানান লিবিয়ার সেনাবাহিনীর কয়েকজন কর্মকর্তা। স্থানীয় পুলিশের কর্মকর্তা ও সদস্যরাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এবারের হামাগুড়ির পরিকল্পনাকারী ও কোচ কাজী হামিদুল হক বলেন, ‘এ সময়টা লিবিয়ার পরিস্থিতি একটু অশান্ত হলেও আমরা সফল হয়েছি।’ তিনি ভবিষ্যতে সাহারা মরুভূমিতে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা আয়োজনের পরিকল্পনা আছে বলে জানান।

নর্থ আলপাইন ক্লাব বাংলাদেশ ও এক্সট্রিম বাংলা আয়োজিত এ অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা করে লিবিয়ার সেনাবাহিনী। পৃষ্ঠপোষকতা করে মুয়াম্মার গাদ্দাফির মালিকানাধীন জুভেন্টাস ফুটবল ক্লাব ও ফ্যাশন হাউস নিত্যউপহার।

এই হামাগুড়ি অভিযানের ছবি ফটোশপে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

8 Comments to “হামাগুড়ি দিয়ে মরুভূমি পাড়ি দেবেন মুসা ইব্রাহীম”

  1. ‘শুধু মাঝপথে আমার অক্সিজেন পাইপটা ফুটা হয়ে গিয়েছিল।’

    এইডা সিরাম অইসে!

  2. ami opekhai roilam photoshoper kaz guli dekhar jonno!
    🙂

  3. জলদি কাম শেষ করেন। জাতি দেখতে চায় কেমনে হামাগুড়ি দিছিলো 😛

  4. হাঃ হাঃ হাঃ
    জটিল লাগলো!

  5. আমিও ব্লগ এ শেয়ার করলাম 😀

  6. মুসা ইব্রাহীম desh r sate eato baro jardari korlo,r kew kisu bollow na.I am really surprised.

  7. adventure er cheye media te nam othanor apran cheshta! becha ra!

  8. শালারা মরুভূমিতে সাতার দিতে পারল না।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: