Archive for March 26th, 2011

March 26, 2011

যুদ্ধাপরাধ বিচারের খেলা জমছে না: জামায়াত

নিজস্ব মতিবেদক | তারিখ: ২৬–০৩–২০১১

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর মতে, যুদ্ধাপরাধ বিচারের খেলা জমছে না। খেলা না জমার মূল কারণ হিসাবে বাজে ব্যাটিংকে দায়ী করেছে জামায়াত। তারা আওয়ামীলীগ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জামায়াত থেকে ভাল ব্যাটসম্যান  ধারে নেবার জন্য।

আজ শনিবার রাজধানীর বাল-ফালা মিলনায়তনে ঢাকা মহানগর জামায়াত আয়োজিত স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির মকবুল আহমেদ চোৎমারানি যুদ্ধাপরাধের বিচারের প্রতি ইঙ্গিত করে সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘খেলা জমছে না।’

বাজে ব্যাটিংকে দায়ী করে তিনি বলেন, এমনিতেই ব্যাটিং লাইনআপে প্রচুর সমস্যা, তার ওপর স্লো পিচ বানানোর কারণে বল সময়মত ব্যাটে আসছে না। ফলে ব্যাটে—বলে না হবার কারণে ক্যাচ উঠে যাচ্ছে। তিনি ভালো ইনিংসের স্বার্থে সরকারকে জামায়াতের সাথে ঐক্যবদ্ধ হবার আহ্বান জানান।

জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল এটিএম আজহারুল ইসলাম চোৎমারানির দাবি, ভারত প্রথম খেলায় মোষের মত মেরেধরে বাংলাদেশের ব্যাটিংকে পঙ্গু করে দিয়েছে। ভারতের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের জবাবে পাকিস্তান থেকে কামড়ান আকমল ও মোচড়ান আকমল ভাতৃদ্বয়কে ভাড়া করে নিয়ে এসে সিলেট বিভাগের খেলোয়াড় হিসাবে খেলানো উচিত বলে মনে করেন তিনি।

March 26, 2011

বর্তমান সরকার স্বাধীনতা রক্ষা করতে পারছে না: মির্জা ফখরুল

নিজস্ব মতিবেদক | তারিখ: ২৬-০৩-২০১১

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, স্বাধীনতা রক্ষায় জামায়াতের প্রত্যক্ষ সহায়তা নিয়ে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। বর্তমান সরকার স্বাধীনতা রক্ষা করতে পারছে না বলে তিনি মন্তব্য করেন।

গতকাল শুক্রবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে স্বাধীনতা দিবসের এক আলোচনা অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই সরকার স্বাধীনতা রক্ষা করতে পারছে না। তাই স্বাধীনতা রক্ষার দায়িত্ব নিতে হবে বিএনপি ও জামায়াতকে। তবে তার আগে স্বাধীন করতে হবে জামায়াতের কারাবন্দী শীর্ষ নেতাদের। বিএনপি ক্ষমতায় এলে তাদেরকে নিঃশর্ত মুক্তি দেবে এবং তাদের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা নিয়ে বিএনপি পাকিস্তানের নিরাপদ হাতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা জমা রাখবে।’

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব দাবি করেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনে সবচেয়ে বেশি অবদান যাদের, তাদেরকে বন্দি রেখে স্বাধীনতা রক্ষা করা সম্ভব নয়। বর্তমান সরকার এটা বোঝে না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, জিয়াউর রহমানকে নিয়ে শুধু সংসদে নয়, সংসদের বাইরেও কোনো কটূক্তি করা যাবে না। ইসলামের নবীর মতই জিয়াউর রহমানও সকল সমালোচনার উর্ধে। সংসদে, ঘরে কিংবা বাইরে তাঁর সমালোচনা একাধারে পাপ ও অপরাধ।  

নজরুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মওদুদ আহমদ, এম কে আনোয়ার, আবদুল্লাহ আল নোমান, শামসুজ্জামান প্রমুখ জ্যেষ্ঠ নেতা বক্তব্য দেন।

%d bloggers like this: