Archive for January 12th, 2012

January 12, 2012

আসিফের পুটু মেরে কুয়াকাটা বানাব: মুহিত

বিশেষ মতিনিধি

অর্থনীতি ও রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে ঢাকা চেম্বারের সভাপতির দেওয়া বক্তব্যে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বুধবার মতিকণ্ঠকে তিনি বলেন, “তিনি বানচুদ রাজনৈতিক নেতার মতো বক্তব্য দিয়েছেন। একজন ব্যবসায়ী নেতার এ ধরনের বক্তব্য কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। আমি তার বক্তব্যে প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়েছি। তার পুটু মেরে আমি কুয়াকাটা বানাব।”

ঢাকা চেম্বারের নেতা আসিফ ইব্রাহিম রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতির মূল্যায়ন করে বলেন, “ব্যাংকেতো টাকাই নেই, বিনিয়োগ হবে কোত্থেকে। এভাবে চলতে থাকলে সরকার তো চার-পাঁচ মাস পর বেতনই দিতে পারবে না। সরকারের পুটু দিয়ে লাল নীল সুতা বের হচ্ছে। সেই সুতা দিয়ে আমরা সোয়েটার বানাব।”

তিনি আরো বলেন, “১৯৯১ সালে গণতন্ত্র আসার পর থেকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি একদম অদক্ষভাবে দেশ পরিচালনা করেছে। দুই দলের অদক্ষ শাসনের কারণেই ভর্তুকি দিতে হচ্ছে। পল্লীবন্ধু এরশাদের মত পারফরমেন্স কেউ দেখাতে পারছে না। কারন দুই নারীর মিলনে কিছুই উৎপন্ন হয় না।”

কয়েকজন রাজনীতিক ও ব্যবসায়ীরা তার বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করেন। তারা বলেন, আসিফ ইব্রাহীমের পুটু মেরে ছারখার করা হবে।

মুহিত বুধবার সন্ধ্যায় সচিবালয়ে বলেন, “দুপুরে তিনি (ঢাকা চেম্বারের সভাপতি) আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। আমি তাকে বলেছি, তিনি একটি খানকির পুলা। দেশের অর্থনীতি নিয়ে তিনি যে সব তথ্য দিয়েছেন, সেগুলি তিনি তার পুটু থেকে বের করেছেন বলেও আমি তাকে জানিয়েছি।”

মৃদুভাষী বলে পরিচিত প্রবীণ এই সাবেক সরকারি কর্মকর্তাকে এসময় ক্ষুব্ধ দেখাচ্ছিল। তিনি পেন্টের চেইন খুলে রেখেছিলেন।

রাগতস্বরে তিনি বলেন, “চার-পাঁচ মাস পর সরকার সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারিদের বেতন দিতে পারবে না- এ ধরনের আতঙ্ক ছড়ানো বক্তব্য দেওয়ার সাহস তিনি কোথায় পান। আমি ও আমার সরকার নাকি চাটুকারদের কথায় চলি- এ ধরনের বক্তব্য দেওয়ার সাহস তিনি পেলেন কোথায়? তার পুটু মেরে আমি কুয়াকাটা বানাব। খানকির পুলা।”

অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার পর বিষয়টি নিয়ে ঢাকা চেম্বার সভাপতির কাছে জানতে চাইলে তিনি মতিকণ্ঠকে বলেন, “উনি (অর্থমন্ত্রী) আমার আংকেল। বাবার মতো। কে জানে, হয়ত উনিই আমার প্রকৃত বাবা।”

January 12, 2012

আমার পুটুতে আঙ্গুল দিয়ে আর কেউ ক্ষমতায় যেতে পারবে না: এরশাদ

ব্রাহ্মনবাড়িয়া মতিনিধি

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘আমার পুটুতে আঙ্গুল দিয়ে আর কেউ ক্ষমতায় যেতে পারবে না। জাতীয় পার্টি কারো ক্ষমতার সকেট হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আগামীতে জাতীয় পার্টি একক নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় গিয়ে দেশের মানুষের পুটু মেরে কুয়াকাটা বানাবে।’

বুধবার ৩টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় নবীনগর হাইস্কুল মাঠে উপজেলা জাতীয় পার্টি আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক স্বৈরশাসক এরশাদ এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘ইতোমধ্যে আমরা ২০০ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী ঠিক করেছি। আপনারা (জনগণ) আমাকে আরও প্রার্থী দেন। আমি ক্ষমতায় গিয়ে আপনাদের পুটু এয়সা মারুংগা এয়সা মারুংগা কে আপলোগ কা নিন্দ হারাম হো যয়েগি।’

তিনি বলেন, ‘ইসলামের বিরুদ্ধে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। কিন্তু আমি বলেছিলাম ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম রাখতে হবে। ইসলাম রাষ্ট্রধর্ম আছে। থাকবেও ইনশাল্লাহ। যদি না থাকে, দেখেন কি করি।’

এর আগে বেলা আড়াইটায় হেলিকপ্টারযোগে নবীনগর সরকারি কলেজমাঠে অবতরণ করে তিনি জনসভা স্থলেযোগ দেন। তিনি বলেন, ‘বানচুদ ফিল্মস্টার এম এ জলিল অনন্ত হেলিকপ্টারে করে বিবাহ করতে যায়। আমি আপনাদের উদ্দেশে বলতে চাই, আমিও হেলিকপ্টারে চলাচল চুদাই।’

%d bloggers like this: