Archive for May 3rd, 2012

May 3, 2012

আমি পরিস্থিতির শিকার: জুলফিকার

বিশেষ মতিবেদক

চট্টগ্রামের তালসরার পীরের দরবার থেকে দুই কোটি টাকা লুটের ঘটনায় সেনাবাহীনী থেকে বহিষ্কৃত কর্নেল জুলফিকার আলী মজুমদার নিজেকে পরিস্থিতির শিকার বলে দাবী করেছেন।

আজ ঢাকার মগবাজারের একটি বাড়ি থেকে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর সাংবাদিক সম্মেলন ডাকেন কর্নেল জুলফিকার।

জুলফিকার আলী মজুমদার বলেন, তালসরার পীর একজন দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী। রেবের অধিনায়ক হিসাবে আমি তার বিরুদ্ধে একটি অভিযান পরিচালনা করি। রাতের অন্ধকারে তার বাড়িতে প্রবেশের পর এই দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী পীর আমাদের লক্ষ করে টাকার বান্ডিল নিক্ষেপ করে। আত্মরক্ষার্থে আমরা পাল্টা টাকার বান্ডিল নিক্ষেপ করি। এইভাবে অনেক সময় ধরে টাকার বান্ডিল ক্রস নিক্ষেপের পর একসময় আমাদের টাকার বান্ডিল ফুরিয়ে যায়। কিন্তু তালসরার দুর্ধর্ষ পীর আমাদের দিকে বৃষ্টির মত টাকার বান্ডিল নিক্ষেপ করতে থাকে। টাকার বান্ডিলের আঘাতে আমি আহত হই। এক সময় তার টাকার বান্ডিল ফুরিয়ে গেলে আমার অধীনস্থ রেবগন পীরকে নিরস্ত্র করে। আলামত হিসাবে আমরা টাকার বান্ডিলগুলি জব্দ করে নিয়ে আসি।

ঐ টাকা দিয়ে তিনি কেন জমি ও বাড়ি কিনলেন, এ প্রশ্নের জবাবে জুলফিকার আলী মজুমদার বলেন, ফুল কেন ফুটে? পাখি কেন গায়? ভ্রমরা কেন মধু পান করে? আর কুকুর কেন এক ঠেং উচু করে মুতে? সব প্রশ্নের উত্তর হয় না, উত্তর খোজা ঠিকও নয়।

তিনি সাংবাদিকদের সহযোগীতা চেয়ে বলেন, আপনারা আমার জন্য দুয়া করবেন।

তালসরার ঘটনা নিয়ে আর ঘাটাঘাটি না করার অনুরোধ জানিয়ে জুলফিকার বলেন, লাইনে আসুন।

Tags:
May 3, 2012

ইলিয়াসের স্ত্রী-সন্তানকেই তদন্ত করতে হবে: মুন্নুজান

বিশেষ মতিবেদক

শ্রম ও কর্মসংস্থা প্রতিমন্ত্রী বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান বলেছেন, ইলিয়াসের বিধবা স্ত্রী ও ইয়াতীম সন্তানদিগকেই তদন্তে এগিয়ে আসতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী এক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান।

মুন্নুজান সুফিয়ান বলেন, সবাই জানে ইলিয়াস আর জীবীত নাই। সে শেষ। বিএনপির গুন্ডারা ইলিয়াসকে খেয়ে ফেলেছে। এখন ইলিয়াসের বিধবা স্ত্রীকেই এর তদন্ত করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী আবেগঘন কণ্ঠে বলেন, দেশে কুটি কুটি লোক। তাদের কুটি কুটি সমস্যা। অল্প কয়েকটা পুলিশ দিয়ে সেই সমস্যার সমাধান করতে হয়। আমরা কিভাবে সব সমস্যা সামাল দিব? ইলিয়াসের হত্যাকান্ডের তদন্ত যদি পুলিশকে করতে হয়, তাহলে হরতালে মিছিলে লাঠিচার্জ কে করবে আর সচিবালয়ে কে বন্দুক হাতে পাহারা দিবে?

মুন্নুজান সুফিয়ান বলেন, ইলিয়াসের হত্যাকান্ডের তদন্ত সবচেয়ে ভাল ভাবে করতে পারবে তার বিধবা স্ত্রী আর তার ইয়াতীম সন্তানগন। ইলিয়াসের সাথে কার কার টেকাটুকা নিয়ে সমস্যা, কার পাকা ধানে ইলিয়াস মই দিয়েছিল, এইসব তারা সবচেয়ে ভাল জানে। তাই কারা ইলিয়াসকে তুলে নিয়ে গায়েব করল, তা তাদেরই খুজে বের করতে হবে। এর মধ্যে আর পুলিশকে টানা ঠিক হবে না।

মুন্নুজান সুফিয়ান বলেন, আসুন আমরা নিজেদের সমস্যা নিজেরা মোকাবেলা করি।

%d bloggers like this: