পাকিপ্রেমের পতপত পতাকা

প্রথমালু ক্রিড়া ডেস্ক

আমাদের ক্রিড়া পাতায় আজ পাকি প্রেমরস পুর্ন দুটি লেখা আলো ছড়াচ্ছে।

১. বেবসায়ী আফৃদি

আমাদের ক্রিড়া ডেস্কের নয়ন মনি শহিদ আফৃদি ইদিয়ান নামের একটি বুটিক হাউসের প্রতিষ্ঠাতা। তিনি কুয়েত, কাতার, যুক্তরাস্ট্র, কানাডার পর এবার ঢাকায় ফেশন হাউসটির শো রুম উদভোদন করলেন কাল।

তিনি বলেন, আমি এর আগেও ঢাকায় এসেছি। এবার নতুন পরিচয়ে এলাম। আমার এই বেবসার আসল উদ্দেশ্য অন্য যে কুন বেবসার মতই – টেকাটুকা কামান। আরো অনেক দেশ থাকতে বাংলাদেশে আসার কারন হল, এই দেশে আছে কুটি কুটি পাকচোদ, যারা পাকিস্তান বা আমার নাম শুনলেই মাখায়া ফেলে। এই পাকচোদ গুলার দৌলতে আমার বেবসা রমরমা হবে ইনশাল্লা।

মুনাফাঘন কন্ঠে তিনি বলেন, বিশিষ্ট পাকচোদ নেতা মতিচুর রহমান আফৃদি তার পত্রিকা বেবহার করে আমার বেবসা প্রসারে হেল্প করতে শুরু করেছে। এর জন্যে অবশ্য তাকে কিছু এডভান্স দিতে হয়েছে।

আশরাফুলের ইস্পট ফিকসিং কেলেংকারি বিষয়ে তিনি বলেন, বাঙালি এত দিনে লাইনে এসেছে। পাকিস্তানি ক্রিকেটারগন > যে পথে করে গমন > হয়েছে কারাবরনীয়, আশরাফুল সেই পথেই চলেছে। বাঙালিদের সঠিক উপলব্ধি হয়েছে বলেই বাংলাদেশের রাজনিতিও এখন মাশাল্লা পাকিস্তানকে অনুসরন করছে।

পরবর্তিতে বাংলাদেশে আরো কুন বেবসা প্রতিষ্ঠান খুলবেন কিনা, জানতে চাইলে আফৃদি বলেন, আমি জানি, মেহেরজানের মত অনেক বাঙালি জেনানা পাকিস্তানি তাগড়া জওয়ানদের রুপগুন মুগ্ধ। তাই ‘মেরি মি, আফৃদি’ নামে একটা শাদি এজেন্সি চালু করার পরিকল্পনা আমার আছে। এর মাধ্যমে পাকিধনপেয়ারু বাঙালি জেনানারা পাকি জওয়ানদের শাদি করতে না পারলেও স্বাদ নিতে পারবে অন্তত।

তিনি আরো জানান, একাত্তর সালের নয় মাস পাকি সেনাদের নিবির সান্যিধ্যে কাটিয়ে সেটার সুখ স্রিতি আজ পর্যন্ত বহন করে চলা এক রাজনৈতিক নেত্রি এই শাদি এজেন্সি উদভোদন করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তবে তাকে কুন কারনে না পাওয়া গেলে আবুল বা মখাকে দিয়েও কাজ চলবে।

২. হাসি মুখে ক্ষমা চাইলেন বাট

বেবাকেই জানে, বিশ্ব জুড়ে দুই নম্বরি কাজে পাকিস্তানিরা এক নম্বর। ক্রিকেটেও এর বেতিক্রম নহে। ইস্পট ফিকসিং করে ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হওয়া ও ইংলেন্ডের জেলে সাত মাস বাটমারা খাওয়া পাকিস্তানি বেটসমেন সালমান বাট অবশেষে বাটে পড়ে নিজের বাট বাচাতে প্রকাশ্যে অপরাধ স্বিকার করে বলেছেন, আমি দুষ করেছি, বাট আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে চাই। ইস্পট ফিকসিং পাকিস্তানের জাতীয় ক্রিড়া। এই খেলা হতে নিজেকে দুরে রাখা সম্ভব নহে।

হাসি মুখে ক্ষমা চাইছেন বাট, তার চেহারায় পষ্ট অনুশোচনার ছাপ

দুই নম্বরি আবেগঘন কন্ঠে তিনি বলেন, আইসিসির দুর্নীতিবিরোধী ও নিরাপত্তা ইউনিটকে (আকসু) একটা অভিশাপ। আরাম করে টেকাটুকা কামাইতে দেয় না। আরে, দরকার হইলে তোরা পার্সেন্টেজ নে। বেটারা বুজে না: ষোল আনা থেকে যদি চার আনা যায়, হিশেব দাড়ায় এসে বার আনায়, কিন্তু বার আনাতে আমরা খুশি…

এর আগ পর্যন্ত বাট অবশ্য বরাবরই নিজেকে নির্দুষ দাবি করে এসেছেন। তাকে প্রশ্ন করা হয়, এত দিন অপরাধের কথা স্বিকার করেননি কেন নিজের মুখে? উত্তরে তিনি বলেন, বাট থাকতে মুখ কেন?

 

4 Comments to “পাকিপ্রেমের পতপত পতাকা”

  1. বেশ্যা আফ্রদি্‌্‌জুয়াড়ী বাট

  2. কিউট কিউট বানান ভুল

  3. কুটি কুটি পাকচোদ, যারা পাকিস্তান বা আমার নাম শুনলেই মাখায়া ফেলে———darun likhchen BOSS

  4. “কুটি কুটি পাকচোদ যারা আমার বা ফাকিস্তানের নাম শুনলে মাখায়া ফেলে”—– চুম্বুক ডায়ালগ।
    ক্যামনে যে আপ্নের মাথায় এইসব কথা বাইর হয়, খা-লেদা মালুম।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: