সামনে আসছে শুভ দিন: বাবুনগরী

নিজস্ব মতিবেদক

সদ্য গঠিত রাজনৈতিক দল বাবুনাগরিক শক্তির আমীর, বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল বিজয়ী অর্থনীতীবীদ ও গ্রামীন বেংকের বিতাড়িত মালিক ড. মুহম্মদ ইউনূস বাবুনগরী বলেছেন, সামনে আসছে শুভ দিন।

শনিবার রাজধানীতে ধানমণ্ডির বেসরকারি ডেফডিল ইন্টারনেশনাল ইউনিভার্সিটি মিলনায়তনে ‘সোশাল বিজনেস ইয়ুথ কনভেনশনে’ প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন বাবুনগরী।

ইউনূস বলেন, শেখের বেটী আমার পুটুতে শুদু শুদু অংগুলি দিল। তার পেট ভর্তি শুদু হিংসার অনল। আমি নোবেল পাইছি, সে পায় নাই। আমি যুক্ত রাস্ট্রের প্রেসিডেন্টের ফৃডম পদক পাইছি, সে পায় নাই। আমি কংগ্রেসের সোনা পাইছি, সে পায় নাই। ফরবেশ আমায় দরবেশ কয়েছে, তারে কিছু কয় নাই। তাই হিংসায় হিংসায় সে জ্বলিয়া পুড়িয়া ছারখার। আর তাই প্রতিশুধ নিতে শেখের বেটী আমায় ঘেটী ধরিয়া আমার হক্কের গ্রামীন বেংকের গদি হতে খেদাইয়া দিল। বলল, তুমি বুড়া হয়া গেছ। আরে যখন ছুডু ছিলাম তখন কি নোবেল পাইছি, ফৃডম পদক পাইছি, কংগ্রেসের সোনা পাইছি, ফরবেশের মুখে দরবেশ ডাক পাইছি? যা পাইছি তা ত বুড়া হইয়াই পাইছি। এখন দেখ এই বুড়া হাড়ের ভেলকি। জিএসপি সুবিধা বাতিল করাইয়া দিলাম বুড়া বয়সেই।

শেখের বেটী ০, বাবুনগরী ১

আবেগঘন কণ্ঠে ইউনূস বলেন, সামনে আসছে শুভ দিন। এই যে এত দিন গেল, বাকশালের কুন নেতা, কুন বুদ্ধিজীবী আমার কুন খুজখবর করে নাই। আমি কি খাই, কি পরি, তারা কুন খবরই লয় নাই। কিন্তু বৃহত্তর জামায়াতের বিএনপি শাখার ভাঁড়প্রাপ্ত নায়েবে আমীর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সেদিন আমার বাড়িতে আসিয়াছিল। সংগে খাওয়ার জন্য আম, লিচু, কচু শাক দিয়া মাছের মাথার ছালুন, আর পরার জন্য শহীদ আফৃদির দুকান ইদিয়ান হতে খরিদ করা একটি আরাম দায়ক রেশমী চুড়িদার পাইজামা। ফখা ইবনে চখা আমায় বলল, বাবুদা আপনি ১৮ দলের সংগে চলিয়া আসেন। আপনার খাওয়া পরার চিন্তা থাকবে না। আমরা ক্ষমতায় গেলে আপনাকে গ্রামীন বেংকের গদি ফিরাইয়া দিব। এইবার এমন আইন করব যে আপনি মরার পর আপনার ফেমিলির লুকজন সেই গদি পাইবেক।

হাসতে হাসতে বাবুনগরী বলেন, আমি ত আর ঘাস খাইয়া নোবেল পাই নাই। সংগে সংগে তাহাকে শুধাইলাম, তুমাদের তরুন নেতৃত্ব বড় গনতন্ত্র তারেক জিয়া যে আমার নোবেলের টেকার টেন পারসেন্ট চান্দা খাইছিল, সেই টেকা ফিরত দিবা কিনা বল। ফখা তাহাতেও রাজি। সে বলল, বাবুদা টেকা কুন বেপারই নহে। আপনার বাড়ি ভর্তি খালি সোনার মেডেল। এ কি সোনার আলোয় জীবন ভরিয়ে দিলে, ও গ বন্ধু সাথে থেক, পাশে থেক।

সবাইকে বৃহত্তর জামায়াতের মার্কায় ভোট প্রদানের আহোভান জানিয়ে বাবুনগরী বলেন, গ্রামীন বেংকের এক কুটি খাতক নারীর আমি মা-বাপ। তারা আমার নিকট টেকাটুকা ধারে। এই এক কুটি নারীকে এখন বৃহত্তর জামায়াতের বাক্সে ভুট দিতে হবে। অন্যথায় তাদের বাড়ির চাল আমি নিজের হাতে খুলিয়া আনব।

প্রধান মন্ত্রীকে সতর্ক করে দিয়ে ইউনূস বলেন, আজ জিএসপি গেছে, কাল যাবে গদি, আমার হক্কের মাল ফিরাইয়া না দেও যদি।

4 Comments to “সামনে আসছে শুভ দিন: বাবুনগরী”

  1. ha ha ha….. jotil!!!!!!

  2. আর কত দালালি করবেন। দিন আর বাকি নাইগো উদাস আর হিমু দাদারা।

    • হিমু তো বটেই আর অনেক লিখার ষ্টাইল দেইখা আমার মুনয় ধর্মকারির ধর্মপচারক শালাও এইখানে জড়িত।

  3. নতুন একটা নির্ভেজাল দল করলে আপনার সাথে থাকতাম কিন্তু এইতো দেখছি আপনি জামায়েতের নতুন চামচা ! 😀

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: