Archive for July 24th, 2013

July 24, 2013

দুই তরুনীর মালাবদল, হাটহাজারীতে আহাজারী

হাটহাজারী আল-মতিবেদক

দুই তরুনীর মালাবদলের ঘটনায় সারা দেশসহ হাটহাজারীতে বেপক আহাজারী পরিলক্ষিত হয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরে দুই তরুনীর মালাবদলের ঘটনায় বলগ, ফেসবুক ও পতৃকায় বয়ে যায় আহাজারীর ঝড়। অনলাইন পতৃকার সাংবাদিকরা প্রচন্ড উত্তেজিত হয়ে পড়েন। পবিত্র রমজানে এহেন খবর শুনে বেশ কয়েকটি অনলাইন পতৃকা অফিসে বার্তা সম্পাদকগন অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

মহাসেনের হাত হতে রক্ষা পেলেও আহাজারীর ঝড় হতে রক্ষা পায়নি হেফাজতে ইসলামের দুর্গ ও উপমহাদেশের সর্বাপেক্ষা কামেল জ্ঞানী বেক্তি আল্লামা রাজ শাহ আহমদ শফীর আস্তানা হাটহাজারী।

পিরোজপুর জেলার দুই তরুণী পুজা (১৬) ও সানজিদা (২১) একে অন্যের সহিত রগরগে লেসবিয়ান প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। এমন প্রেম শফিক রেহমান ওরফে রসময় গুপ্ত (৭০) কতৃক লিখিত চটি পুস্তিকাতেও পাওয়া যায় না।

দুই তরুনীর পরিচয় হয়েছিল মুঠোফোনে। দিনে দিনে তাদের সখ্য রূপ নেয় প্রেমে। গত ১৪ জুলাই তারা একে অপরের হাত ধরে পলায়ন করেন। ঘর ছেড়ে পিরোজপুর থেকে ঢাকায় চলে আসেন দু’জন। রাজধানীতেই ‍তারা সুখের খোঁজে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে শুরু করেন। আর চালিয়ে যান রগরগে লেসবিয়ান প্রেম।

এদিকে পুজার পিতা (৪৫) মেয়েকে না পেয়ে গত ২০ জুলাই পিরোজপুর সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিরোজপুর সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাদল কৃষ্ণ (৪০) অপহরণকারীকে গ্রেফতারের জন্য সোর্স নিয়োগ করেন। তিনি জানতে পারেন পুজাকে ‘অপহরণকারী’ আর কেউ নন, তিনিও আরেকজন নারী। তার নাম সানজিদা (২১)।

বাদল কৃষ্ণ (৪০) বুঝতে পারেন, এ আর কিছু নয়, রগরগে লেসবিয়ান প্রেম। কাল বিলম্ব না করে তিনি একবিংশ শতাব্দীর অত্যাধুনিক প্রযুক্তি মবাইল ট্রেকিং প্রয়গ করে জানতে পারেন, দুই তরুনী রাজধানীতে একটি বাসায় পরস্পরের সংগে উন্মত্ত রগরগে লেসবিয়ান প্রেমে লিপ্ত। বাদল কৃষ্ণ (৪০) তখন রেব-২, সয়াট টিম, ডিজিএফআই, এনএসআই ও ডগ স্কয়াডের সহযোগীতায় ঐ বাসা থেকে এই দুই তরুনীকে আটক করেন।

এ সময় দুই তরুনী রেব-২ কে কথার পেচে ফেলে কাবু করার চেস্টা করেন। পুজা (১৬) রেব-২ কর্মকর্তা লেপটেনেন্ট সাজ্জাদ (২৩) কে বলেন, একটি পুরুষ একটি নারীকে ভালবাসতে পারলে একটি নারী কেন একটি নারীকে ভালবাসতে পারবে না? আমরা একে অপরের সাথে মালা বদল করেছি, সিথিতে সিদুর দিয়েছি।

জবাবে লেপটেনেন্ট সাজ্জাদ (২৩) বলেন, নারীর ত প্রেমদন্ড নাই। আর ভালবাসতে প্রেমদন্ড লাগে। একটি নারী আরেকটি নারীকে প্রেমদন্ড বেতীত কিরুপে ভালবাসবে? কায়দাটা কি?

পুজা (১৬) নিখোঁজ হওয়ার পর তার বাবার দায়ের করা মামলার তদন্ত করতে গিয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বাদল কৃষ্ণ (৪০) হতবাকই হয়েছেন শুধু। কারণ এমন অদ্ভুতুড়ে কাণ্ড তিনি কখনও দেখেননি বা শোনেননি।

এসআই বাদল (৪০) বলেন, আমি এত চিন্তা করিয়াও বুঝতে পারলাম না, এই দুইজন কি কায়দায় একে অপরকে ভালবাসে? কায়দাটা কি?

পুজা (১৬) ও সানজিদা (২১) এর মালাবদলের কথা হাটহাজারীতে পৌছালে প্রচন্ড চাঞ্চল্যের সৃস্টি হয়। বুধবার বাদ ইফতার হাটহাজারী বড় মাদ্রাসা হতে পুজা (১৬) ও সানজিদা (২১) কে গনিমতের মাল ঘোষনার দাবীতে এক বিক্ষোভ মিছিল পরিচালিত হয়।

এক তাতক্ষনিক সংবাদ সম্মেলনে আল্লামা রাজ শফী (৯২) বলেন, শাহবাগ আমাদের সমাজের কত বড় ক্ষতি করিয়াছে আপনারা এইবার দেখেন। এক তেতুল আরেক তেতুলের হাত ধরিয়া পলাইছে। তারা এমনই দুর্ধর্ষ তেতুল যে রেব লাগাইয়া, ডগ স্কয়াড লেলাইয়া তাদের পাকড়কে ওয়াপাস লানা পড়া। ইয়ে সুন কর মে ত মাননীয় স্পীকার বন গায়া।

নারীদের মাঝে সমলিংগ প্রেমের তীব্র নিন্দা করে আল্লামা শফী (৯২) বলেন, পুরুষে পুরুষে প্রেম খারাপ কিছু নহে, এতিমখানা মাদ্রাসায় উহা অহরহ হয়। সমাজের জন্য উহা ভাল। স্বাস্থের জন্যও ভাল, পাইখানা তাড়াতাড়ি হয়। কিন্তু তেতুলে তেতুলে প্রেম একটি জঘন্য বেপার।

আবেগঘন কণ্ঠে আল্লামা শফী (৯২) বলেন, মতিঝিলে গনহত্যার চেয়েও এই খবর বেশী খারাপ। তেতুলরা একে অপরের সহিত মিলামিশা করতেছে। আগে ভাবতাম তাদের বাড়ির অন্দরে আটকাইয়া রাখলে আমরা শান্তিতে তাদের ভোগ দখল করতে পারব। এখন দেখি তারা নিজেরা নিজেরা একশনে বেস্ত। আমরা ত আর কুন চাঞ্ছই পাব না। ইয়া আল্লাহ তুমি রহম কর।

পুজা (১৬) ও সানজিদা (২১) এর রগরগে লেসবিয়ান প্রেমের জন্য বাকশালকে দায়ী করে আল্লামা রাজ বলেন, কিন্তু প্রেমদন্ড ছাড়া তারা একে অপরকে কিরুপে ভালবাসে? কায়দাটা কি?

July 24, 2013

আমার কাছে তথ্য আছে: শেখ জয়

নিজস্ব মতিবেদক

বাংলাদেশে প্রমদ ভ্রমনে এসে বাকশালের মহিলা আমীর ও প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী ভাষা কন্যা গনতন্ত্রের মানস কন্যা ড. শেখ হাসিনার পুত্র শেখ জয় বলেছেন, আমার কাছে তথ্য আছে বাকশাল আবার ক্ষমতায় আসবে।

এক সংবাদ সম্মেলনে শেখ জয় তার কাছে তথ্য থাকার তথ্য তুলে ধরেন।

শেখ জয় বলেন, বাংলাদেশে ক্ষমতা সর্বদা একবার বাকশালের হাতে একবার বৃহত্তর জামায়াতের হাতে যায়। কিন্তু এইবার আমার কাছে তথ্য আছে, বাকশাল পর পর দুইবার ক্ষমতায় থাকবে।

পাচটি সিটি কর্পরেশনে বাকশাল সমর্থিত প্রার্থীর ভরাডুবির বেপারটি ফু দিয়ে উড়িয়ে দিয়ে শেখ জয় বলেন, সিটি কর্পরেশন নির্বাচনে হারলেও আমার কাছে তথ্য আছে।

দেশের বিভিন্ন স্তরের মানুষের মনে বাকশাল সম্পর্কে অসন্তোষ বৃদ্ধির বেপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি অসন্তোষ ফু দিয়ে উড়িয়ে দিয়ে বলেন, মানুষ অসন্তোষ হইলেও আমার কাছে তথ্য আছে।

উই দেখা যায় তালগাছ

বাকশালের বিভিন্ন স্তরের নেতা কর্মীরা সন্ত্রাস দুর্নীতীতে জড়িয়ে পড়ে মানুষের কাছে বাকশালের ভাবমুর্তি নষ্ট করছে কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে শেখ জয় বলেন, বাকশালের ভাবমুর্তি নষ্ট হইলেও আমার কাছে তথ্য আছে।

বাকশাল কোন কারনে নির্বাচনে পরাজিত হলে কি ঘটবে, এমন প্রশ্নের জবাবে শেখ জয় বলেন, তখন আমার কাছে তথ্য থাকবে যে বাকশাল পরাজিত হইছে।

July 24, 2013

বাকশাল মারতে ওয়াশিংটনে বাবুনগরী

নিজস্ব মতিবেদক

বাংলাদেশে বাকশালের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে জেহাদের ডাক দিয়ে ওয়াশিংটনে মার্কিন যুক্ত রাস্ট্রের রাজনীতী বিষয়ক সহকারী পর রাস্ট্র মন্ত্রী ওয়েন্ডি শারমিনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন সদ্য গঠিত রাজনৈতিক দল বাবুনাগরিক শক্তির আমীর, বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল বিজয়ী অর্থনীতীবীদ ও গ্রামীন বেংকের বিতাড়িত মালিক ড. মুহম্মদ ইউনূস বাবুনগরী।

মংগল বার ওয়াশিংটন সময় সকাল সাড়ে ১১টায় পর রাস্ট্র দপ্তরে এই গোপন বৈঠক হয়।

বৈঠক শেষে ওয়েন্ডি শারমিন এ বেপারে সাংবাদিকদের কিছু না জানিয়ে লাঞ্চে চলে যান।

কিন্তু সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দিতে উপস্থিত হন ইউনূস বাবুনগরী।

চড় দিয়া বাকশালের পুটু ফাটাব: বাবুনগরী

উত্তেজিত কণ্ঠে বাবুনগরী বলেন, বাকশালের বেয়াদবী আর সহ্য করব না। সরকারের এত বড় সাহস, তারা বাবুনগরী সেন্টারকে ধমক দেয়। এইবার আমি ওয়াশিংটন হতে সপ্তম নৌবহর খালাস করাইয়া তারপর দেশে রওনা হব। এয়ারুপ্লেনে চড়িয়া দেশে ফিরার দিন শেষ, এইবার বিমানবাহী জাহাজে চড়িয়া চট্টগ্রাম বন্দরে পা ফেলিব। সাবধান শেখের বেটী, ইউ জাষ্ট অয়েট। পদ্মা সেতু বন্দ করছি, জিএসপি সুবিধা বন্দ করছি, এখন সপ্তম নৌবহর দিয়া তুমার মুখ বন্দ করব।

আবেগঘন কণ্ঠে বাবুনগরী বলেন, মার্কিন যুক্ত রাস্ট্রের সহকারী দীপু মনি মিস ওয়েন্ডি শারমিন আমার সংগে আছেন। আমি এখন আর দুনিয়ার কাউকে ডরাই না। সপ্তম নৌবহর লইয়া বখতিয়ার খলজির নেয় আমি সুধা সদনের দরজায় বোমা ফালাব। তারপর অন্য কথা।

হিলারি রডহাম ক্লিনটনের পরিবর্তে পর রাস্ট্র মন্ত্রী হিসাবে জন কেরির দায়িত্ব গ্রহনের বেপারে অসন্তষ প্রকাশ করে ইউনূস বলেন, কেরি কুন কামেরই নহে। আজ হিলারি থাকলে আমায় ওয়েন্ডি শারমিনের সংগে মুলামুলি করতে হইত না। ওয়েন্ডি শারমিন গ্রামীন বেংকের মালিক দরিদ্র নারীদের নেয় সহজ সরল নহে, তার পেটে পেটে শুদু জিলাপির পেছ। আমি যতই তারে বলি সপ্তম নৌবহর পাঠা তেলের টেকা আমি দিমু, সে ততই বলে, কাকা মাথাটা ঠাণ্ডা করেন। আরে সালি ঘোচু, এখন একশনের সময়, ঠাণ্ডা মাথা দিয়া কি কাম?

বাবুনগরীর প্রশ্নত্তর শেষ হওয়ার পর ওয়েন্ডি শারমিন লাঞ্চ করে ফিরে এসে সাংবাদিকদের মুখমুখি হন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বাংলাদেশে সপ্তম নৌবহর পাঠানর কুন পরিকল্পনা আমৃকার নাই।

আবেগঘন কণ্ঠে শারমিন বলেন, আমরা দেশ বুঝিয়া যুদ্ধর কায়দা ঠিক করি। ইরাকে আমরা সেনা বাহিনী পাঠাইছি, আফগানিস্তানেও পাঠাইছি। কিন্তু বাংলাদেশের সংগে লড়াইয়ে আমাদের অস্ত্র বাবুনগরী। সে একাই এক ডিভিশন সোলদারের সমান ক্ষতি সাধন করতে পারবে। লাইক এ বস।

July 24, 2013

ইসলাম গ্রহন করেছেন রাজবধু কেট

নিজস্ব মতিবেদক

বৃটেনের রানী দ্বীতিয় এলিজাবেথের নাতি প্রিন্স উইলিয়ামের প্রথম পরিবার ও ডুচেস অফ কেমব্রিজ কেট মিডলটন ইসলাম গ্রহন করেছেন।

তাকে অভিনন্দন জানিয়ে মংগলবার সংবাদ সম্মেলনে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন হেফাজতে ইসলামের আমীর ও উপমহাদেশের সর্বাপেক্ষা মহান আলেম আল্লামা রাজ আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

আল্লামা শফী বলেন, এই কেট মিডলটন আগে ছিল একটি নাস্তিক শাহাবাগীনী। তার উলংগ ছবি সারা পৃথীবির পেপার পতৃকায় ছড়াইয়া পড়িয়াছিল। আমি হাটহাজারী মাদ্রাসায় বসিয়া এই খবর শুনিয়া আমার এক তালেবে এলেমকে ডাকিয়া বলিলাম, যা এক কপি ইয়াহুদী নাছাড়া পেপার খরিদ করিয়া আন। সে আমায় সেই পতৃকা আনিয়া দেখাইল। পতৃকার পরথম পিষ্ঠায় বড় আকারের রংগীন ছবিতে দেখলাম বৃটিশ মহারানীর ঘরে আসিয়া উপস্থিত হইয়াছে এক শাহাবাগীনী। সম্পুর্ন উলংগ অবস্থায় সে শাহবাগে চেয়ার পাতিয়া শুইয়া ছিল। আর সেই ছবি ছাপা হইছে সারা দুনিয়ার পেপারে। আস্তাগফিরুল্লাহ।

লাইনে এসেছেন কেট মিডলটন

আবেগঘন কণ্ঠে আল্লামা শফী বলেন, তার জামাই উইলিয়াম আমায় আসিয়া বলল, হুজুর একটা পুত্র সন্তান দেন। আমি বললাম, পুত্র সন্তান চাস ত একা আসিয়াছিস কেন, তর শাহাবাগীনী বউ কুথায়? সে তখন বলিল না হুজুর বউকে হাটহাজারী আনা যাবে না, আপনি ডিম দেন। আমি বললাম, বৃটিশ রাজার ঘরে জন্মাইয়া তর এই আক্কেল এলেম? ডিম খাইলে পুত্র হয়? ডিম খাইলে গেস হয় সালা ঘোচু।

আল্লামা শফী বলেন, আল্লাহর কাছে তওবা করিয়া এই শাহাবাগীনী অবশেষে ইসলামের পতাকা তলে হাজির হইছে। আল্লাহর অশেষ মেহেরবানীতে সে একটি পুত্র সন্তানও লাভ করিয়াছে। এখন সে ঘরে বসিয়া স্বামীর আসবাব ও পুত্র সন্তানের হেফাজত করবে।

উত্তেজনা প্রকাশ করে আল্লামা রাজ বলেন, উফফফফ কেট মিডলটন একটা সেই রকম তেতুল আছিল। আপসুস সে এখন পর্দা করে।

%d bloggers like this: