মোরগ পোলাও নিয়ে রাজনীতীতে অস্থিরতা, সংঘাতের হুমকি দিলেন খোকা

নিজস্ব মতিবেদক

পুত্র শেখ জয়ের জন্মদিনে বাকশালের মহিলা আমীর ও প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী ভাষা কন্যা গনতন্ত্রের মানস কন্যা ড. শেখ হাসিনার মোরগ পোলাও রান্নার ঘটনা রাজনীতীতে বেপক অস্থিরতা সৃস্টি করেছে।

আজ এক সংবাদ সম্মেলনে এ অস্থিরতার কথা তুলে ধরেন বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার নেতৃ বৃন্দ।

বিএনপি শাখার ভাঁড়প্রাপ্ত নায়েবে আমীর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, প্রধান মন্ত্রীর মাথা খারাপ হয়ে গেছে। পদ্মা সেতুর ২৩ হাজার কুটি টেকা তিনি মোরগ পোলাও খাইয়া উড়াইয়া দিতেছেন। মাথা ঠান্ডা করেন। এইভাবে রাজনীতী হয় না। নিউ মার্কেট বা বাইতুল মকাররম হতে ভাল দেখে ৪০০ ছুটকেছ খরিদ করেন। টেকা সেই ছুটকেছে ভরেন। তারপর সৌদী আরবে একটা ঘুর্না দিয়া আসেন।

আক্ষেপ করে ফখা ইবনে চখা বলেন, ময়দানে নামছেন কিন্তু খেলার নিয়ম জানেন না।

বিএনপি শাখার মজলিশে শুরার সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, গত সাড়ে চার বছরে শেখ হাসিনা প্রতিদিন কুটি কুটি টেকার মোরগ পোলাও রন্ধন করেছেন। পদ্মা সেতুর সব টেকা চলে গেছে কারওয়ানবাজারের মুরগীর আড়ত আর কাটারিভোগ চাউলের দুকানে। আমি যখনই কারওয়ানবাজার যাই তখনই দেখি বাকশালের কুন না কুন লিডার বেগ হাতে মুরগীর আড়তের সামনে খাড়াইয়া থাকে। গনভবনে প্রতি সন্ধায় রাতের অন্ধকারে রেব পুলিশের হাতে শয়ে শয়ে মুরগীর গনহত্যা হয়।

অশ্রু মুছে মির্জা আব্বাস বলেন, একটা দিন দাওয়াত দিল না। সব মোরগ পোলাও বাকশালীরাই খাইল। দুস্টামির একটা সীমা আছে। টেন পারসেন্ট আমাদের খাওয়াইলে দেশে শান্তি থাকত।

মোরগ পোলাও খাওয়ানর হুমকি দিয়ে নায়েবে আমীর সাদেক হোসেন খোকা বলেন, আমাদের মহিলা আমীর সৌদী বাদশার ফিতরার টেকা সংগ্রহের কাজে সৌদী আরব গিয়াছেন। এখনই উতকৃস্ট সময়। চুপেচাপে দাওয়াত দিয়া মোরগ পোলাও খাওয়ায় দেন, কুন ঝামেলা হবে না। দাওয়াত না দিলে বা জানাজানি হইলে সংঘাত অনিবার্য।

প্রধান মন্ত্রীকে আশ্বাস দিয়ে খোকা বলেন, মোরগ পোলাও খাওয়ান, তাইলে ক্ষমতায় গিয়া আর্জেস গ্রেনেড আস্তে মারব।

উকিলে আমীর বেরিষ্টার আল্লামা মওদুদ আহমদ বলেন, মোরগ পোলাও নিয়ে বাকশালের আস্ফালন দেখে আমরা হতবাক। আমরাও পোলাও রান্না করতে পারি। মহিলা আমীরের জন্মদিন ১৫ আগষ্ট, ঐদিন আমরা পল্টন ময়দানে কয়লার চুলায় উটপাখির গুস্ত দিয়া পোলাও রান্না করব।

বেংকক হতে খালেদা জিয়ার অপর সন্তান আরাফাত কোকো বলেন, মোরগ চিনা চিনা লাগে। কিন্তু পোলাও কাকে বলে?

6 Comments to “মোরগ পোলাও নিয়ে রাজনীতীতে অস্থিরতা, সংঘাতের হুমকি দিলেন খোকা”

  1. অশ্রু মুছে মির্জা আব্বাস বলেন, একটা দিন দাওয়াত দিল না। সব মোরগ পোলাও বাকশালীরাই খাইল। দুস্টামির একটা সীমা আছে। টেন পারসেন্ট আমাদের খাওয়াইলে দেশে শান্তি থাকত। 😀 😀
    তোরা পাকি জাতীয় পশু রাম ছাগুর রান দিয়া রোষ্ট খা শালারা

  2. অশ্রু মুছে মির্জা আব্বাস বলেন, একটা দিন দাওয়াত দিল না। …. প্রধান মন্ত্রীকে আশ্বাস দিয়ে খোকা বলেন, মোরগ পোলাও খাওয়ান, তাইলে ক্ষমতায় গিয়া আর্জেস গ্রেনেড আস্তে মারব। …. 😉

  3. মোরগ পোলাও খাওয়ানর হুমকি দিয়ে নায়েবে আমীর সাদেক হোসেন খোকা বলেন, আমাদের মহিলা আমীর সৌদী বাদশার ফিতরার টেকা সংগ্রহের কাজে সৌদী আরব গিয়াছেন। এখনই উতকৃস্ট সময়। চুপেচাপে দাওয়াত দিয়া মোরগ পোলাও খাওয়ায় দেন, কুন ঝামেলা হবে না।
    (y)

  4. খুকা এত চিল্লায় ক্যারে?

  5. boroi sundor hoise

  6. বেংকক হতে খালেদা জিয়ার অপর সন্তান আরাফাত কোকো বলেন, মোরগ চিনা চিনা লাগে। কিন্তু পোলাও কাকে বলে? jatil hoychhe…

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: