ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস খুললেন বাবুনগরী

নিজস্ব মতিবেদক

বিবিধ রাজনৈতিক সংকট সমাধানের পরামর্শ নিয়ে গ্রামীন বেংক ভবনের একাংশে সুসজ্জিত আরাম দায়ক বিলাস বহুল বাবুনগরী সেন্টারে ‘ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস’ উদ্ভোদন করেছেন সদ্য গঠিত রাজনৈতিক দল বাবুনাগরিক শক্তির আমীর, বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল বিজয়ী অর্থনীতীবীদ ও গ্রামীন বেংকের বিতাড়িত মালিক ড. মুহম্মদ ইউনূস বাবুনগরী।

আজ বাবুনগরী সেন্টারে রাজনৈতিক সংকট নিয়ে সমাধান প্রার্থী রাজনীতীবীদ কল্যান পার্টির আমীর জেনারেল ইব্রাহীমকে পরামর্শ দিয়ে সহায়তাকালে আয়জিত সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষনা দেন বাবুনগরী।

ইউনূস বলেন, আমাদের দেশ অপার সম্ভাবনার দেশ। অনাদিকাল হতে এই দেশে নানা রকম রাজনৈতিক সংকট লাইগাই আছে। যুগে যুগে বিভিন্ন বৈদেশিক শক্তি এই দেশের সংকট সমাধানের নাম করে গদিতে আরহন করেছিল। এখনও তারা সেই মতলবে আছে। দুইদিন আগে জাতিসংঘের মহাসচিব বানকির পুলা বানকি মুনও সেই ধান্দায় বাকশালের আমীর শেখের বেটী ও বিএনপি শাখার আমীর মেডামের সংগে টেলিফুনে আলাপ করেছে।

আবেগঘন কণ্ঠে ইউনূস বলেন, রাজনৈতিক সংকট সমাধানের বেবসা আমরা কেন বিদেশীদের হাতে তুলিয়া দিব? যখন আমাদের দেশেই একজন গরীব দরদী, হাশিখুশি, প্রগতিশীল নোবেল বিজয়ী আছেন? আছেন একজন যুক্ত রাস্ট্রের প্রেসিডেন্টের ফৃডম পদক বিজয়ী, আছেন একজন কংগ্রেসের সোনা বিজয়ী? আমরা কি রাজনৈতিক সংকটে বুদ্ধি পরামিশের জন্য তার মত বসের কাছে যাইতে পারি না? সামান্য হাদিয়ার বিনিময়ে কি সংকটের সমাধান কইরালাইতে পারি না? ইয়েস উই কেন।

হাসিমুখে পরামর্শ দিয়ে রাজনৈতিক সংকট দুর করি: বাবুনগরী

পদে পদে বিদেশীদের কাছে ধর্না দেওয়ার কারনে রাজনীতীবীদদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে বাবুনগরী বলেন, যে দেশে গুনীর কদর নাই সেই দেশে গুনীরা থাকে না। সময় থাকতে কদর দেন।

তিনি নিজে কেন বিপদে আপদে হিলারি রডহাম ক্লিনটন, স্পেনের রানী প্রভৃতি বিদেশীদের নিয়ে ফ্রেন্ডস অফ গ্রামীন গঠন করে সারা বিশ্বে প্রচারনা চালিয়েছিলেন আর প্রচারনার জন্য ইংরাজ মার্ক পার্শির পরামর্শ গ্রহন করেছিলেন, এ প্রশ্নের কোন সরাসরি উত্তর না দিয়ে বাবুনগরী হাসতে হাসতে বলেন, বুঝেনই ত।

সংকটের সমাধানের জন্য আগত রাজনীতীবীদ জেনারেল ইব্রাহীম বলেন, বাবুদার পরামর্শের কুন তুলনা হয় না। সংসদে মননয়ন নিয়া গেনজাম হওয়ায় তার নিকট আসিয়াছিলাম, তিনি খুব ভাল পরামিশ দিছেন। আমি তার জন্য দুয়া করব।

মার্কিন যুক্তরাস্ট্রের রাস্ট্র দুত মজিনা ফায়ারফক্স মতিকণ্ঠকে মুঠোফোনে বলেন, বাবুদার কাছে আমিও পরামিশ চাইতে গেছিলাম। বললাম বাবুদা বাংলাদেশের লোকজন আমায় রোজ রোজ দিষ্টাপ দেয়, কি করব? তিনি আমায় বললেন, মজিনা তুমি তাদের আমার নিকট পাঠাইয়া দিও। হাদিয়ার টেন পারসেন্ট তুমাকে দিব। আজ জেনারেল ইব্রাহীম আমার সংগে আলাপ করতে চাইছিল, আমি তারে বাবুদার কাছে পাঠাইয়া দিছি।

One Comment to “ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস খুললেন বাবুনগরী”

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: