হাসিনার হাত হেফাজত বাচালো

হেফাজত মতিবেদক

হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর মুফতি ইজহারুল ইসলাম এরশাদ করেছেন, হেফাজতিদের প্রতি বাকশালীদের কৃতগ্য থাকা উচিৎ। কারণ আমরা হেফাজতীরা হাসিনার হাত রক্ষা করেছি। আপনারা জানেন, আজ আমার পরিচালিত জামেয়াতুল উলুম আল ইসলামিয়া মাদ্রাসার ছাত্রাবাসের একটি কক্ষে বিষ্ফুরনের ঘটনায় পাচ জন গেলমান আহত হয়েছে। একজনের হাতের কবজি শহীদ হয়েছে।

ইসলামী শান্তিঘন কন্ঠে তিনি বলেন, এই হাত হতে পারত হাসিনার হাত। কিন্তু আমরা যথা সময়ে হাসিনাকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছিলাম, আমাদের মাদ্রাসা সমকওমী। আমরা কারো আগে নাই, কিন্তু পিছে আছি। আমরা এখানে নিরাপদে শান্তিবোমা বানাইতে চাই। আমরা সারা দেশ বেপি এই শান্তি ছড়ায়ে দিব। তাই আপনি মাদ্রাসায় হাত দিবেন না। তিনি আমাদের কথা রেখেছেন। না হলে আজ হয়ত হাসিনার হাতের কবজি ওড়ে যেত। আমরা কেবল হেফাজতে ইসলামই না, আমরা হেফাজতে হাসিনার হাতও।

তিনি আরো বলেন, আমরা ব্লগ দিয়া ইন্টারনেট চালাই – এ কথা বেবাকেই জানে। আজ তারা আরো জানল, আমরা লেপটপ দিয়ে বুমা চালাই। আমাদের আবিষ্কৃত বুমার নাম ইউপিএস বুমা। আর্জেস বুমার যুগ শ্যাষ। বাজারে এসেছে নতুন বুমা। কম খরচে আমাদের সাশ্রয়ী বুমা অর্ডার দিতে আজই যুগাযুগ করুন জামেয়াতুল উলুম আল ইসলামিয়া মাদ্রাসায়।

বুমা তৈরির সুমায় বিষ্ফুরন ঘটেছে বলে ক্রেতারা উৎসাহি নাও হতে পারে – এমন সংশয় প্রকাশ করায় হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর মুফতি ইজহারুল ইসলাম বলেন, ওই গেলমানগুলা বুমা তৈরির সহিহ তরিকা অনুসরন করে নাই। এরা বুমা তৈরির শুরুতে বিসমিল্লা বলে নাই ও নিরাপদে বুমা বানাইবার দুয়া পাঠ করে নাই বলে আল্লাপাক নাখোশ হয়েছেন। এর পর থেকে এমন ভূল হবে না ইনশাল্লা।

অনেকেই বলছেন, প্রকৃত বুমা বানাইতে গিয়া ধরা খেয়ে ইউপিএস বিষ্ফুরনের কথা বলা – ইট’স আ লেম এক্সকিউজ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইহা লেম এক্সকিউজ নহে, ইহা আলেম এক্সকিউজ।

10 Comments to “হাসিনার হাত হেফাজত বাচালো”

  1. হাসতে হাসতে পেট ব্যাথা হয়ে গেলো, কিন্তু “ব্লগ” বানান ভুল, এটা হবে “বোলগ”

  2. That’s way too much,how could you say that they should have read ALLAHs name before making bomb?Go get a life

    • এইসব আ-LAME কথাবার্তা বইল্যা কুনই ফয়দা নাই। মতিকণ্ঠ পড়ার আগে ‘ধর্মানুনুভূতি’কে ডাস্টবিনে ফেলে দিন।

      লাইনে আসুন :p

  3. পাচ জন গেলমান আহত হয়েছে। একজনের হাতের কবজি শহীদ

  4. ইহা লেম এক্সকিউজ নহে, ইহা আলেম এক্সকিউজ।

    মতিরে, সিরাম হইসেরে।

  5. “ইট’স আ লেম এক্সকিউজ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইহা লেম এক্সকিউজ নহে, ইহা আলেম এক্সকিউজ।” মৌলবাদীদের একদম কচুকাটা করে দেয় মতিকন্ঠ

  6. মইরা গেলাম। মেনি মেনি থেনক্স। অনেক দিন পর প্রাণ খুলে হাস্লাম।

  7. না রে মতি, সম্ভব না! এই দুইন্নায় কারো দ্বারা সম্ভব না এই জিনিস হবে না, একমাত্র মতিকন্ঠ-ই পারে! কিন্তু কেমনে, ভাই, একবার একটু ক কেমনে পারস???!!

  8. মতিকণ্ঠ পড়ার আগে ‘ধর্মানুনুভূতি’কে ডাস্টবিনে ফেলে দিন।

    লাইনে আসুন :p

  9. Vai Motikontho, even Shibram Chakrabarty fail. You are best.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: