দেশের পরিস্থিতি নিয়ে বাবুনগরীর উদ্বেগ

কেপটাউন মতিনিধি

বাংলাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সদ্য গঠিত রাজনৈতিক দল বাবুনাগরিক শক্তির আমীর, বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল বিজয়ী অর্থনীতীবীদ ও গ্রামীন বেংকের বিতাড়িত মালিক কায়েদে নোবেল ড. মুহম্মদ ইউনূস বাবুনগরী বলেছেন, বাংলাদেশের দরকার আরেকটি শান্তি নোবেল।

আজ দক্ষিন আফৃকার কেপটাউনে নিজ হোটেলের আরাম দায়ক বিলাস বহুল কক্ষে আয়জিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন বাবুনগরী।

কায়েদে নোবেল বলেন, বিদেশে বসে দেশের নানা খবর পাই। সকল খবরই খারাপ। প্রিয় মাতৃভুমি চট্টলার বুকে সেদিন মুফতি ইজাহারের মাদ্রাসায় বোম ফুটল। গতকাল প্রিয় এলাকা ফকিরাপুলের একটি বাড়িতে বোম ফুটল। উভয় স্থানেই বোম উতপাদন চলিতেছিল।

উদ্বেগ প্রকাশ করে বাবুনগরী বলেন, আমাদের গারমেন্টস শিল্পকে যেভাবে তলে তলে ধংস করা হচ্ছে, একই ভাবে আমাদের গ্রেনেড শিল্পকেও তলে তলে ধংস করা হচ্ছে। কারখানায় উতপাদনের সময় গ্রেনেড ফুটিয়া কারিগররা আহত নিহত হচ্ছে। এর পিছনে অবশ্যই দেশী বিদেশী চক্রান্ত আছে।

আবেগঘন কণ্ঠে ইউনূস বলেন, চার দলীয় সরকার যখন ক্ষমতায়, তখন দেশে কুথাও অন্তত উতপাদনের সময় বোম ফুটে নাই। তাই সর্বত্র শান্তি বিরাজমান ছিল। একটা দেশের অবস্থা কত খারাপ, তা পরিমাপের একটি প্রকৃস্ট উপায় হইতেছে বোম বানানির সময় ফুটার হার। বাকশালী সরকারের পাল্লায় পড়িয়া এই হার অত্যন্ত বৃদ্ধি পাইয়াছে। এখন রোজ রোজ ঘরে ঘরে বোমার কারখানা বিপন্ন।

বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর খানকির পোলা নেতা কর্মীদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে বাবুনগরী বলেন, একটা গ্রেনেড ঠিক মত বান্ধিতে পার না অতছ বাকশালী সরকারের বিরুদ্ধে জেহাদ করতে চাও।

নিম্নমানের ভারতীয় বিস্ফোরকের পরিবর্তে উন্নতমানের জাপানী বিস্ফোরক বেবহারের আহ্বান জানিয়ে কায়েদে নোবেল বলেন, কিপটামি করিও না। জেহাদে নামলাই যখন, আসল জাপানী মশলা দেখিয়া খরিদ কর। ব্রাহ্মন্যবাদী ভারতের ভেজাল মশলা বর্জন কর। সস্তার তিন অবস্থা। টেকাটুকা লাগলে টেকাটুকা দিব।


একটা পাইছি, আরেকটা দেও: বাবুনগরী

নিজের বোমায় আহত নিহত না হওয়ার জন্য বৃহত্তর জামায়াতের বোমার কারিগরদের আহ্বান জানিয়ে বাবুনগরী বলেন, নিজের বোমায় আহত হওয়া মানে নিজের বেংক হতে ঋন লইয়া সুদ দিতে বাধ্য হওয়ার মত। তুমরা লাইনে আস। নদী কভু পান নাহি করে নিজ জল, তরুগন নাহি খায় নিজ নিজ ফল, জলিল নিজের বুকে নাহি খায় চুমা, মুজাহিদ নাহি মারে নিজ পুটুতে বুমা।

অবিলম্বে দ্বীতিয় শান্তি নোবেল প্রদান পুর্বক বাংলাদেশে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য নোবেল কমিটিকে আহোভান জানিয়ে ইউনূস বলেন, কচি তেতুল মালালা একটি নাস্তিক বলগার। সে এগার বতসর বয়স হতে বলগ দিয়া ইন্টারনেট চালায়। আল্লামা শফির পাকিস্তানে মালালার ঠাই নাই। তাছাড়া হাজার নোবেল দিয়াও পাকিস্তানে আর শান্তি সাইজ করা সম্ভব নহে। তাই মালালার পিছে নোবেল পদক নস্ট না করিয়া বরং আমায় আরেকটি দাও। শান্তিতে হোক বা অর্থনীতীতে হোক, দুটি নোবেলই যথেস্ট।

8 Comments to “দেশের পরিস্থিতি নিয়ে বাবুনগরীর উদ্বেগ”

  1. শক্তিদই ইনুচ চাইলে বুমা বানাতে ক্ষুদ্র লুন দিতে পারে । 😀 😀

  2. নদী কভু পান নাহি করে নিজ জল, তরুগন নাহি খায় নিজ নিজ ফল,
    জলিল নিজের বুকে নাহি খায় চুমা, মুজাহিদ নাহি মারে নিজ পুটুতে বুমা।

  3. ভাই রে আপনারা কি খান সত্য কইরা কইবেন?? কেমনে পারেন?? কেমনে?

    • আশলেই……এত আইডিয়া কিভাবে আসে ??! 😀
      খুবই ভালো লাগলো !!
      “নদী কভু পান নাহি করে নিজ জল, তরুগন নাহি খায় নিজ নিজ ফল, জলিল নিজের বুকে নাহি খায় চুমা, মুজাহিদ নাহি মারে নিজ পুটুতে বুমা।”
      আহারে বেচারা জলিল… 😛

  4. “একটা পাইছি, আরেকটা দেও: বাবুনগরী…..” .. শিরোনাম হইতে পারত…..

    ভাই বহুত দিন পর একটা ফাটাফাটি লেখা ………..

  5. তাছাড়া হাজার নোবেল দিয়াও পাকিস্তানে আর শান্তি সাইজ করা সম্ভব নহে

  6. নদী কভু পান নাহি করে নিজ জল, তরুগন নাহি খায় নিজ নিজ ফল, জলিল নিজের বুকে নাহি খায় চুমা, মুজাহিদ নাহি মারে নিজ পুটুতে বুমা।

  7. অবিলম্বে দ্বীতিয় শান্তি নোবেল প্রদান পুর্বক বাংলাদেশে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য নোবেল কমিটিকে আহোভান জানিয়ে ইউনূস বলেন, কচি তেতুল মালালা একটি নাস্তিক বলগার।
    শেরন স্টনরে লইবনি?

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: