আরে ধুত্তেরি শাহাদতের তামান্না: মুজাহিদ, কামারুজ্জামান

নিজস্ব মতিবেদক

আলবদর কমান্ডার মুজাহিদ

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের নির্মম বলি ও মৃত্যু দন্ডের রায় মাথায় নিয়ে অপেক্ষমান বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর খানকির পোলায়ে নায়েব ও আলবদর কমান্ডার আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ ও কামারুজ্জামান ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, আরে ধুত্তেরি শাহাদতের তামান্না।

কাশিমপুর কারাগারে কনডেম সেলে এক অন্তরংগ সাক্ষাতকারে মতিকণ্ঠের কাছে এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন মুজাহিদ ও কামারুজ্জামান।

মুজাহিদ বলেন, শুরুতে চিন্তা করছিলাম, মাদারে গনতন্ত্র খালেদা জিয়া মেডাম আছে, কুন চিন্তা নাই। কিন্তু পরিস্থিতি আস্তে আস্তে কঠিন হল। তারপর চিন্তা করছিলাম, সৌদী আরব ও পাকিস্তান আছে, কুন চিন্তা নাই। কিন্তু পরিস্থিতি আস্তে আস্তে কঠিন হল। তারপর চিন্তা করছিলাম, বেরিষ্টার রাজ্জাক আছে, কুন চিন্তা নাই। কিন্তু পরিস্থিতি আস্তে আস্তে কঠিন হল। তারপর চিন্তা করছিলাম, মজিনা ফায়ারফক্স আছে, কুন চিন্তা নাই। কিন্তু পরিস্থিতি আস্তে আস্তে কঠিন হল। তারপর চিন্তা করছিলাম, অধ্যাপক ইউনূস বাবুনগরী ও হিলারি রডহাম ক্লিনটন আছে, কুন চিন্তা নাই। কিন্তু পরিস্থিতি আস্তে আস্তে কঠিন হল। তারপর চিন্তা করছিলাম, জাতিসংঘ আছে এমনেষ্টি আছে হিউমেন রাইট ওয়াচ আছে, কুন চিন্তা নাই। কিন্তু পরিস্থিতি আস্তে আস্তে কঠিন হল। তারপর চিন্তা ভাবনা করার সময় খবর পাইলাম, আমাগের কসার কাদের ভাই ক ফাসি মে ঝুলা দিয়া।

আবেগঘন কণ্ঠে মুজাহিদ বলেন, গোলাম আজমের কথায় ভুলিয়া এই লাইনে আসছিলাম। আজ সে সালা ঘোচু ৯০ বতসরের আরামদন্ড লইয়া নিরাপদে ঘুমাইতেছে, আর আমরা দুইটা কচি কচি নায়েব ফাসির কাষ্ঠে ঝুলব।


ফাসির রায় শুনে পেন্টে মল তেগ করেছিলেন আলবদর কমান্ডার কামারুজ্জামান

হুহু করে কেদে উঠে কামারুজ্জামান বলেন, এত এত রেললাইন উপড়াইলাম, এত মানুষরে জ্বালাইয়া পুড়াইয়া মারলাম, খালেদা মেডামরে শয়ে শয়ে কুটি টেকা দিলাম, লেকিন কাদেরা ক ফাসি রুখনা না মুমকিন নিকলা। আব মেরা কেয়া হগা রে কালিয়া?

এ সময় মুজাহিদ কামারুজ্জামানকে আলিংগন করে সান্তনা দেওয়ার চেস্টা করলে কামারুজ্জামান উশখুশ করে উঠেন।

বৃহত্তর জামায়াতের খানকির পুলা নেতা কর্মীদের রটান শাহাদতের তামান্নার গল্প সম্পর্কে জানতে চাইলে মুজাহিদ ও কামারুজ্জামান চিতকার করে কেদে উঠে বলেন, আরে ধুত্তেরি শাহাদতের তামান্না। মরিতে চাহিনা আমি সুন্দর ভুবনে। এই হারামজাদা রাজ্জাক একটি বালের বেরিষ্টার। উহারে উকিল ধরিয়াই আমরা ডুবলাম। আগে জানলে তুরীন আফরুজকে উকিল ধরিতাম।

3 Comments to “আরে ধুত্তেরি শাহাদতের তামান্না: মুজাহিদ, কামারুজ্জামান”

  1. “ফাসির রায় শুনে পেন্টে মল তেগ করেছিলেন আলবদর কমান্ডার কামারুজ্জামান” হা হা হা হা ওই মল ওরে গিলায়া দে!

  2. আরে ধুত্তেরি শাহাদতের তামান্না। মরিতে চাহিনা আমি সুন্দর ভুবনে। এই হারামজাদা রাজ্জাক একটি বালের বেরিষ্টার। উহারে উকিল ধরিয়াই আমরা ডুবলাম। আগে জানলে তুরীন আফরুজকে উকিল ধরিতাম।

  3. এই হারামজাদা রাজ্জাক একটি বালের বেরিষ্টার। উহারে উকিল ধরিয়াই আমরা ডুবলাম। আগে জানলে তুরীন আফরুজকে উকিল ধরিতাম।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: