মওদুদের ঐ ১০০ টেকাই লছ: বাবুনগরী

ওয়াশিংটন মতিবেদক

মওদুদ বুকা: বাবুনগরী

বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার কারা বন্দী উকিলে আমীর ও দলিল জাল করে অর্পিত সম্পত্তি বেদখলের মামলায় অভিযুক্ত সুখী পুরুষ আল্লামা বেরিষ্টার মওদুদ আহমদের সমালচনা করে সদ্য গঠিত রাজনৈতিক দল বাবুনাগরিক শক্তির আমীর, বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল বিজয়ী অর্থনীতীবীদ ও গ্রামীন বেংকের বিতাড়িত মালিক ‘অর্থনীতীর সানি লিওনি’ কায়েদে নোবেল ড. মুহম্মদ ইউনূস বাবুনগরী বলেছেন, মওদুদ একটি এমেচার।

আজ ওয়াশিংটনে নিজ হোটেলের আরাম দায়ক বিলাস বহুল কক্ষে আয়জিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ সমালচনা করেন কায়েদে নোবেল।

হাস্যজ্জল বাবুনগরী বলেন, খবরে পড়লাম, বাকশাল সরকার উকিলে আমীর মওদুদের নামে দলিল জাল করিয়া বাড়ি দখলের মামলা করিয়াছে। এ থেকেই বুঝা যায়, মওদুদ বেরিষ্টার একটি এমেচার মাত্র।

আবেগঘন কণ্ঠে বাবুনগরী বলেন, এহসান নামে এক কমবখত পাকিস্তানী ইনজে মারিয়া ফ্লাজ নাম এক বিদেশিনীকে শাদী করিয়া ততকালীন পুর্ব পাকিস্তানে বাস করিতে আসে। তখন ১৯৬০ সাল। আমার রুল মডেল মিস্টি পুরুষ জেনারেল আইয়ুব খান তখন পাকিস্তানের গদিতে। গুলশান এলাকা তখন ছিল জলা জংগলে ভরা। এহসান তার বিলাতি বধু লইয়া আসিয়া জমি কিনিল সেই গুলশানের জংগলে। এক কাঠা নহে, দুই কাঠা নহে, ১ বিঘা ১৩ কাঠা ১৪ ছটাক জমি। সেই জমির উপর ঘরবাড়ি তুলিয়া এহসান ১১টি বতসর সুখে শান্তিতে পুর্ব পাকিস্তানে বিদেশী বউ লইয়া সংসার করিল।

অশ্রু মুছে ইউনূস বলেন, তারপর শুরু হইল গন্ডগল। ঠাশ ঠাশ দ্রুম দ্রাম শুনে লাগে খটকা। আমি তখন মার্কিন যুক্তরাস্ট্রে লিখাপড়া করতেছি। দেশে গন্ডগলের খবর শুনিয়া আমি ঠিক করলাম, এইসব পলিটিকস ভাল নহে।

দেশের প্রধান দৈনিকের বরাত দিয়ে ‘অর্থনীতীর সানি লিওনি’ বলেন, গন্ডগলের সময় বুকা এহসান তার বিলাতি বধু লইয়া পুর্ব পাকিস্তান ছাড়িয়া দিল চম্পট। আর তার ৩৪ কাঠার বাড়িটি দখল করল মওদুদ লম্পট। শুধু দখলই সে করে নাই, একাত্তরের রেম্ব শহীদ প্রেসিডেন্ট জেনারেল জিয়ার আমলে মন্ত্রী হইয়া মওদুদ বেরিষ্টার অর্পিত সম্পত্তির তালিকা হতে ঐ ইনজে মারিয়া ফ্লাজের নামটি কাটাইয়া লয়। এর পর সে এই তিনশত কুটি টেকা মুল্যের বাড়িটির দলিল মাত্র ১০০ টেকায় বন্দবস্ত করিয়া লয়। এখন সে বলিয়া বেড়াইতেছে সে এই ইনজে মারিয়া ফ্লাজের ভাড়াটিয়া। অতছ ইনজে মারিয়া ফ্লাজ সেই যে মাইরের মুখে বাংলাদেশ ছাড়িয়া পলায়ন করছিল, আর সে ফিরে নাই।

নষ্টালজিকতায় আচ্ছন্ন হয়ে ইউনূস বলেন, মওদুদ যে সময় ১০০ টেকা দিয়া বাড়ি বেদখল করতে আছিল, আমি সে সময় ৫০ টেকা দিয়া জোবরা গ্রামে ক্ষুদ্র ঋনের বিজনেশ চালু করি। তখন ৫০ টেকা বিনিয়গ করিয়া আজ আমি ৩০ হাজার কুটি টেকার গর্বিত মালিক। হারামজাদা মওদুদ যদি সে সময় ১০০টি টেকা বাড়ির পিছে অপচয় না করিয়া আমায় ৫% সরল সুদে ধার দিত, আজ হয়ত আমি ৬০ হাজার কুটি টেকার মালিক হতে পারতাম।

হাসতে হাসতে কায়েদে নোবেল বলেন, কিন্তু মওদুদের ঐ ১০০টি টেকাই লছ। আমায় দেখ। বতসরের পর বতসর সরকারী একটি বাড়ি দখল করিয়া বসবাস করিতেছি। শেখের বেটী আমায় ঘেটী ধরিয়া গ্রামীন বেংকের গদি হতে বিতাড়ন করিলেও গ্রামীন বেংকের আমীরের জন্য সরকারী বাড়ি হতে বিতাড়ন করিতে পারে নাই। আজ দুইটি বতসর ধরিয়া ঐ বাড়িটি মাগনা মাগনা অবৈধ ভাবে বেবহার করিতেছি। কেউ কুন কথা বলতে পারে না। কথা বললেই সপ্তম নৌবহর পাঠাব।

আনন্দে চোখ বন্ধ করে বাবুনগরী বলেন, সরকারের পুটুতে আংগুল দিব, সেই খরচ সরকারই বহন করতেছে। গেসের বিল, পানির বিল, কারেনের বিল সবই সরকার দেয়। আমায় শুধু কস্ট করে কলাটা মুলাটা ও কচুটা খরিদ করতে হয়। আমি ত মনে করি এই খরচও সরকারেরই দেওয়া উচিত ছিল। সালাদের কুন লজ্জা নাই।

মওদুদকে গুলশানের বাড়ি হতে উচ্ছেদ করে বাড়িটি নিজের নামে বন্দবস্ত করার বাসনা প্রকাশ করে ইউনূস বলেন, ইনজে মারিয়া ফ্লাজের ৩০০ কুটি টেকার বাড়ি বেদখল হইয়া পড়িয়া রইছে। অতএব সে এখন একটি দরিদ্র নারী। আর দেশে দরিদ্র নারীদের মালিক আমি এই ইউনূস বাবুনগরী। অতএব বাড়িটি আমায় দিতে হবে।

4 Comments to “মওদুদের ঐ ১০০ টেকাই লছ: বাবুনগরী”

  1. আমি তখন মার্কিন যুক্তরাস্ট্রে লিখাপড়া করতেছি। দেশে গন্ডগলের খবর শুনিয়া আমি ঠিক করলাম, এইসব পলিটিকস ভাল নহে।

  2. ইউনুস একটি খাটাস।

  3. মওদুদকে গুলশানের বাড়ি হতে উচ্ছেদ করে বাড়িটি নিজের নামে বন্দবস্ত করার বাসনা প্রকাশ করে ইউনূস বলেন, ইনজে মারিয়া ফ্লাজের ৩০০ কুটি টেকার বাড়ি বেদখল হইয়া পড়িয়া রইছে। অতএব সে এখন একটি দরিদ্র নারী। আর দেশে দরিদ্র নারীদের মালিক আমি এই ইউনূস বাবুনগরী। অতএব বাড়িটি আমায় দিতে হবে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: