বাধ ভেংগে খসে গেল মমতার জল: ফখরুল

নিজস্ব মতিবেদক

বৃহত্তর জামায়াতের বিএনপি শাখার ভাঁড়প্রাপ্ত নায়েবে আমীর, জাতীয়তাবাদী শক্তির ‘কমপ্লান বয়’ ও বড় গুন্ডে কতৃক ‘হাইড এন্ড সিক’ কলংকে ভুষিত মির্জা বাড়ির বড় গৌরব মির্জা ফখরুল ইসলাম আগুনগীর ওরফে ফখা ইবনে চখা বলেছেন, বৃহত্তর জামায়াতের লং ড্রাইভে আতংকিত হয়ে ইনডিয়া তিস্তা নদীতে পানি ছাড়িছে। এতদিন পচ্চিম বংগের মুখ্য মন্ত্রী মমতা বেনারজি এই জল বাধ দিয়া আটকাইয়া রাখছিল। আজ বৃহত্তর জামায়াতের লং ড্রাইভ সামলাইতে না পারিয়া বাধ ভেংগে খসে গেল মমতার জল।

আজ গাইবান্ধায় লং ড্রাইভের ফাকে এক বিরতিতে আয়জিত পথ সভায় আগুনগীর এ কথা বলেন।

ফখা ইবনে চখা বলেন, মেঘপিয়নের বেগের ভিতর মন খারাপের দিস্তা, মন খারাপ হলে কুয়াশা হয় বেকুল হলে তিস্তা। আমরা গদিতে নাই। আমাদের মন শুদু খারাপ নহে, মন বেকুল। কিন্তু মমতা বেনারজির কারনে তিস্তায় কুন পানি নাই। সে একটি অভিশাপ।


বাংলার বিপ্লবী ফখেল কেষ্ট্র

আবেগঘন কণ্ঠে আগুনগীর বলেন, বাকশালের মহিলা আমীর শেখের বেটীর উপর মমতা বেনারজির রাগ। কারন কাজিয়া বিবাদে সে এখনও শেখের বেটীর সমান হইতে পারে নাই। তাই সেই হিংসায় জ্বলিয়া পুড়িয়া মমতা বেনারজি তিস্তা নদীতে বাধ দিয়া সকল জল আটক করিয়া রাখছে। কিন্তু বৃহত্তর জামায়াতের লং ড্রাইভের ঠেলায় আজ এক কিউসেক নয় দুই কিউসেক নয়, তিন হাজার কিউসেক জল তিস্তা নদীতে জামিনে মুক্তি পাইছে।

হাসতে হাসতে মির্জা বাড়ির বড় গৌরব বলেন, বৈশাখের গরমে ঢাকা শহরে থাকা মুশকিল। ফিরিজে যত মামের বুতল ছিল সব শেষ করিয়া ফেলছি। তখন কয়েকজন নায়েবে আমীর বলল, ফখা ভাই চলেন বিএনপি শাখার খরচে ঠাকুরগাও যাই। এখন আম কাঠালের সিজন। লং ড্রাইভও হবে, আবার আপনার গ্রামের বাড়িতে পিকনিকও হবে। আমি বললাম, খেলার সংগে রাজনীতী মিশান কি ঠিক? তারা আমায় তখন বলল, এই কারনেই আপনি এখনও ভাঁড়প্রাপ্ত রইছেন, প্রমুশন পাইতেছেন না।

ভারতের প্রতি হুশিয়ারী জারী করে ফখা বলেন, এই গরমে রোজ রোজ যমুনা সেতুতে টল দিয়া লং ড্রাইভ করতে পারতাম না। আজকে একবার দিয়া গেলাম। আমি যেই কয়দিন ঠাকুরগাও অবস্থান করব, সেই কয়দিন তিস্তায় নিয়মিত জল না খসাইলে খবরই আছে।

মমতা বেনারজির প্রতি বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিয়ে ফখরুল বলেন, মমতা বেনারজি আমার মামাত বোনেরঝির নেয় আপন। এস ভাই এস বোন গড়ে তুলি আন্দুলোন।

6 Comments to “বাধ ভেংগে খসে গেল মমতার জল: ফখরুল”

  1. এস ভাই এস বোন গড়ে তুলি আন্দুলোন :v

  2. এপিক :d

  3. ফখেল কেষ্ট্র!

  4. বাধ ভেংগে খসে গেল মমতার জল: ফখেল কেষ্ট্র
    াআর কিচ্চু বলার নেই। যা হবার হয়েই গেচে।

  5. রুয়েট ট্র্যাজেডি : বিলাসী! [শরৎচন্দ্রের বিলাসী ছোটগল্প অনুকরণে]

  6. হালার “কচলায়তনে”র চুশীল চুদির্বাইগুলা। ঐ জর্মণ আর মের্কিন মুল্লুকের “ঝোল” বইসা বইসা চষো আর গুয়া ভর্তি রাগ ঝাড় নেটে। হালার তোমাগো দেশের লাইগা এতই পিরিৎ যখন, দেশে আইসা কিছু কইরা দেখা। হালা সবই দেখি বাইঞ্চোতের গুষ্টি।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: