থাইলেন্ডে এক এগার, আমায় ডাকল না একবারও: মতিচুর

নিজস্ব মতিবেদক

থাইলেন্ডে এক এগার ঘটানর পর থাইলেন্ডের সেনাবাহীনীর আমীর জেনারেল প্রিউথ চেন ওছাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন দেশের প্রভাবশালী এলাকা কারওয়ানবাজারের সর্দার ও ১১০% অরাজনৈতিক সংগঠন ‘হেফাজতে মাহমুদুর’ এর প্রতিষ্ঠাতা আমীর আল্লামা মতিচুর রহমান আজমী।

পাশাপাশি এক এগার ঘটানর আগে তাকে আমন্ত্রন না জানানয় জেনারেল ওছার প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন মতিচুর।

আজ নিজ কার্যালয়ে আয়জিত এক সংবাদ সম্মেলনে থাইলেন্ডের জেনারেলের প্রতি অভিনন্দন ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন কারওয়ানবাজার সর্দার।

সংবাদ সম্মেলনে মতিচুর বলেন, থাইলেন্ড একটি সুন্দর দেশ। বিভিন্ন প্রয়জনে প্রায়ই আমায় বেংকক যাইতে হয়। সেখানে উন্নত মানের মেসাজের বেবস্থা আছে। ছুটকালে একবার বেংকক গিয়াছিলাম। একটি মেসাজ পালারে গিয়া বললাম, চালাও দেখি তুমাদের নুরু মেসাজ। কিন্তু পালারের মহিলা আমীর আমায় কানে ধরিয়া বহিস্কার করিয়া বলল, তুমার গায়ে ইস্কিন ডিজিজ। তুমায় আমরা নুরু মেসাজ দিব না।

আবেগঘন কণ্ঠে মতিচুর আজমী বলেন, এরপর যখন বড় হইলাম, তখন সিংগাপুরে গিয়া অপারেশন করিয়া ডিজিজে আক্রান্ত ইস্কিন বদলাইয়া লইয়া আসিয়াছি। সিংগাপুর হইতে ফিরার পথে আবার বেংককে থামছিলাম। তখন সেই মেসাজ পালারে গিয়া বললাম এই দেখ আমার ইস্কিন কত সুন্দর। এখন দেও দেখি তুমাদের নুরু মেসাজ। তখন প্রকান্ড এক লোমশ বেংককী পুরুষ আসিয়া আমায় এক ঘন্টা ধরিয়া নুরু মেসাজ দিল।

অশ্রু মুছে মতিচুর বলেন, বেংকক অদ্ভুদ।


ওরা আমায় খেলায় নিল না: মতিচুর

আবেগ সংবরন করে হেফাজতে মাহমুদুরের আমীর বলেন, এত ট্রেজেডির পরেও বেংককের প্রতি আমার সমর্থন কমে নাই। কারন বেংককে বৃহত্তর জামায়াতের বিএনপি শাখার মহিলা আমীরের অপর সন্তান আরাফাত স্নো ওরফে কোকো বাস করে। সে একটি ভুদাই। বেংককের কায়দা কানুন কিছুই সে জানে না। একবার তার সংগে একটি রাত বেংককে চক্কর মারিয়া বুঝলাম, এই সুন্দর শহরটির কুন মজার খোজই সে রাখে না। আমি তখন তাকে বললাম, ইউ ন নাথিং স্নো।

জেনারেল ওছার প্রতি অভিনন্দন জানিয়ে মতিচুর বলেন, থাইলেন্ডে এক এগার ঘটাইছেন, ভাল কাজ করছেন। আপনাদের অন্তর্বর্তী সরকারের ফখরুদ্দিনটি পদত্যেগ করতে চায় না যখন, উহাকে বন্দুক দিয়া গুতাইয়া জেলখানায় ঢুকান। এরপর আর কি কি করতে হবে, সব আমি বলিয়া দিব, কুন চিন্তা করিয়েন না।

এক এগার ঘটনার আগে তাকে আমন্ত্রন না জানানয় ক্ষোভ প্রকাশ করে মতিচুর বলেন, বেংকক হতে ঢাকা কত কাছে। এক এগারর আগে আমায় ডাকলে আমি বেংককের সকল মিডিয়া মেনেজ করিয়া দিতাম। শুদু বন্দুক দিয়া এক এগার হয় না, দুয়েকটি মতিচুরও সংগে লাগে। এখনও সময় আছে, টিকেট পাঠাইয়া দিন। আর একটি ভাল দেখিয়া বেংককী নারীকে দিয়া নুরু মেসাজের বেবস্থাও করিয়েন।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: