চীনা নারীর বিরুদ্ধে কপিরাইট লংঘনের অভিযোগ করলেন মুসা

কাটমন্ডু মতিনিধি

৪০ বতসর বয়সী চীনা নারী পর্বতারোহী ওয়াং জিং এর বিরুদ্ধে কপিরাইট লংঘনের অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশের বিতর্কিত এভারেষ্ট সাটিফিকেট বিজয়ী পর্বত কারবারী ও বাংলার কলম্বাস মুসা ইব্রাহীম।

মংগলবার নেপালের পর্যটন মন্ত্রনালয় ওই নারীর বিরুদ্ধে করা মুসার অভিযোগের তদন্ত শুরু করার কথা জানিয়েছে।

শুক্রবার ওয়াং জিং ৮৮৫০ মিটার উচ্চতার এভারেষ্ট পর্বত শৃংগে আরহন করেন।

কিন্তু কতিপয় ঝামেলাবাজ অভিযোগ করে, এপ্রিলে ৬৪০০ মিটার উপরে বেস কেম্প টুতে এক বরফ ধসে এভারেষ্টে উঠার সদর রাস্তা ভাংগিয়া পড়ায় এর উপরের দিকের একটি বেস কেম্পে গমন করতে ওয়াং জিং হেলিকপ্টার বেবহার করেছেন।

এই অভিযোগ পতৃকায় প্রকাশ পাওয়ার পর ওয়াং জিং এর বিরুদ্ধে নেপালের পর্যটন মন্ত্রনালয়ের জেষ্ঠ সহকারী সচিব লাল বাহাদুর থাপা বরাবর কপিরাইট লংঘনের অভিযোগ দাখিল করেন বাংলার কলম্বাস মুসা ইব্রাহীম।

লাল বাহাদুর থাপা কাটমন্ডু মতিনিধিকে জানান, অভিযোগের দরখাস্তে মুসা ইব্রাহীম বলেছেন, কুন অভিযানে গিয়া অভিযানে বেবহার করা নিষিদ্ধ এমন যান বাহনের সাহায্য নিয়া মিডিয়ার সহায়তায় অভিযান সফল করার দাবী জানানর আন্তর্জাতিক কপিরাইট মুসা ইব্রাহীমের। ওয়াং জিং মুসা ইব্রাহীমের অনুমতি না নিয়া উক্ত কায়দা অনুসরন করায় কপিরাইট লংঘন হয়েছে। এখন ওয়াং জিংকে কপিরাইট লংঘন বাবদ মুসাকে জরিমানা হিসাবে পঞ্চাশ লক্ষ টেকা দিতে হবে।

উদাহরন হিসাবে মুসা ২০১১ সালে টেকনাফ হতে নৌকা যোগে সাতার দিয়ে বাংলা চেনেল পাড়ি দিয়ে সেন্ট মাটিন দ্বিপ আবিষ্কারের উপর একাত্তর টিভির একটি প্রতিবেদনের সিডি দরখাস্তের সংগে দাখিল করেন।

এ বেপারে বাংলাদেশের কপিরাইট লংঘনের অভিযোগের পথিকৃত ও তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ বাংলার জবস মোস্তফা জব্বারের সংগে যোগাযোগ করা হলে তিনি মুসা ইব্রাহীমকে সমর্থন করে বলেন, মুসাকে পঞ্চাশ লক্ষ টেকা জরিমানা দেওয়া ছাড়া ওয়াং জিং এর কুন উপায় নাই। কপিরাইট লংঘন মারাত্মক অপরাধ।

এ বেপারে ওয়াং জিং এর সংগে যোগাযোগ করলে তিনি মুসার অভিযোগ অস্বিকার করে বলেন, আমি এখন কারওয়ানবাজারের উপসর্দার আমিষুল হক পুটুনদার চোখে চোখ রাখিয়া কথা বলার চেস্টা করব। কারওয়ানবাজার চীনের পাশে আছে।

হেলিকপ্টারে চড়ে এভারেষ্টে উঠেছেন কিনা, এমন প্রশ্নের সরাসরি উত্তর না দিয়ে ওয়াং জিং হাসতে হাসতে বলেন, কিছু ডিপিকাল্টিজ ছিল। কিন্তু আমরা মানুষ। মানুষ চাইলে সবই এচিভেবুল।

One Comment to “চীনা নারীর বিরুদ্ধে কপিরাইট লংঘনের অভিযোগ করলেন মুসা”

  1. ক্যামনে পারো ম্যান !

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: