সাংবাদিকতা করে বাগমেন আর টেকা খসে আমার: কামাল

নিজস্ব মতিবেদক

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে মনগড়া বিতর্ক সৃস্টির অপরাধে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের রায়ে ৫ হাজার টেকা জরিমানা ও কানে ধরে দাড়িয়ে থাকার শাস্তি পাওয়ায় বিলাতি সাংবাদিক ডেভিড বাগমেনের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের সংবিধানের প্রনেতা দলের অন্যতম সদস্য, খেতনামা আইনজীবী ও দেশের একমাত্র নির্ভরযোগ্য সাংবাদিক ডেভিড বাগমেনের বৈধ শশুড় গন ফোরামের প্রতিষ্টাতা আমীর এবং হাজার রাজনৈতিক জোটের পাটনার বেক্তিত্ব বাংলার সংবিধানের পিতা আতাসংবিধান ড. কামাল হোসেন ওরফে আইনের ময়দানে কিংবদন্তী ফুটবলার কামালহো।

আজ আদালতের রায় ঘোষনার পর এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন কামালহো।

নিজ চেম্বারে আয়জিত এক সংবাদ সম্মেলনে আতাসংবিধান বলেন, আমি বাংলার সংবিধানের পিতা আতাসংবিধান। ডেভিড বাগমেন আমার জামাতা। অতএব লক্ষ লক্ষ বতসর ধরে চলিয়া আসা পারিবারিক রীতী অনুযায়ী বাংলার সংবিধান সম্পর্কে ডেভিডের শালী। আর শালীর সংগে দুলাভাইয়ের সম্পর্ক যে এই বাংলায় কত মধুর, তা বিস্তারিত বলিয়া আপামর দুলাভাইদের চঞ্চল করিতে চাই না। অতছ শালীরূপী সংবিধানের সংগে মধুর চুদুরবুদুর করার কারনে এই আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনাল ডেভিডরে ৫ হাজার টেকা জরিমানা করিয়া দিল। শুদু জরিমানা করিয়াই এই নিষ্ঠুর ট্রাইবুনাল থামে নাই, উহাকে কানে ধরিয়া কাঠগড়ায় খাড়া করাইয়া রাখছে ঘণ্টার পর ঘণ্টা।


এমন শশুড় কুথাও খুজে পাবে না ক তুমি: কামাল

হুহু করে কেদে উঠে আইনের ময়দানে কিংবদন্তী ফুটবলার কামালহো বলেন, যখন সংবিধান লিখতে বসিয়াছিলুম, তখন একটি বিশেষ ধারা সংযোজন করিয়া যদি আজ আতাসংবিধানের ফেমিলি মেম্বরদের জন্যি সংবিধানের সংগে সকল প্রকার মশকরাকে বৈধ করিয়া দিতাম, আজ আমরার ডেভিডকে কানে ধরিয়া খাড়াইয়া থাকতে হইত না, আমার পকেট হইতেও পাছটি হাজার টেকা খসিত না।

অশ্রু মুছে আতাসংবিধান বলেন, ডেভিড সালা ঘোচু কুন কাজকাম করে না। সারাদিন ট্রাইবুনালে, নুরুল কবীরের কার্যালয়ে আর মগবাজারে পড়িয়া থাকে। রাত্রকালে বাড়ি আসিয়া কয় আব্বা ভাত খামু। উহাকে লালন পালন করতে গিয়া আমার চেম্বারের সকল আয় রুজগার খরচ হইয়া যাইতেছে। দুই ঈদে আড়ং হইতে পাঞ্জাবী খরিদ করিয়া দিতে হয়, ব্রেন্ডের শাট কুট সুট বুট ঘড়ি ফাউন্টেন পেন ইত্যাদিও আমায় যোগাইতে হয়। নাতী নাতনীর মুখের পানে তাকাইয়া উহাও মানিয়া লওন যায়, কিন্তু এই সালা বিলাতী ঘোচুর বলগিং বাবদ জরিমানার টেকাও যদি আমায় পরিশুধ করতে হয়, তাহলে ত পথের ফকির হইয়া যাব।

এক পর্যায়ে বাগমেনের প্রতিও ক্ষোভ প্রকাশ করে আতাসংবিধান বলেন, হাটহাজারিস্তানের খলিফা আল্লামা শফী হুজুর যাহা বলিয়াছেন, ঠিক বলিয়াছেন। এই নাস্তিক বলগারের সংগে একমাত্র কন্যার বিবাহ দিয়া আজ আমি ডুবতে বসছি। সালা ঘোচু বলগ দিয়া ইন্টারনেট চালায় আর ৫ হাজার টেকা খসে আমার পকেট হইতে। উহার বদলে যদি টবী কেডমেনের শশুড় হইতাম, আজ আমার এই গরীবী দশা হইত না।

পকেটে হাত দিয়ে কান্নায় ভেংগে পড়ে কামালহো বলেন, বাংলার আর কুন পিতা যেন লনডনী ঘরজামাই ঘরে আনিয়া আমার নেয় লালবাতি না জ্বালায়।

3 Comments to “সাংবাদিকতা করে বাগমেন আর টেকা খসে আমার: কামাল”

  1. ahare …..

  2. আতাসংবিধান! 😛

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: