খালেদা জিয়া কর্মফল ভোগ করছেন: জুনাইদ সংঘ

হাটহাজারী আল-মতিবেদক

৫ জানুয়ারীকে কেন্দ্র করে সারা দেশে রাজনৈতিক অস্থিরতার মাঝে নিজ কার্যালয়ে খালেদা জিয়ার অবরুদ্ধ থাকা বিষয়ে সন্তুস্টি প্রকাশ করে ১১০% অরাজনৈতিক সংগঠন ‘নিখিল বাংলাদেশ জুনাইদ সংঘ’ এর প্রতিষ্ঠাতা আমীর ও বাংলাদেশের অভ্যন্তরে স্বাধীন রাস্ট্র হাটহাজারিস্তানের নায়েবে খলিফা আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী এবং নায়েবে আমীর আল্লামা জুনাইদ সাকী বলেছেন, খালেদা জিয়া কর্মফল ভোগ করছেন।

আজ হাটাহাজারীর দারুল উলুম মইনুল ইসলাম ওরফে হাটহাজারী বড় মাদ্রাসার ময়দানে পেন্ডেল টাংগিয়ে আয়জিত এক সংবাদ মহাফিলে এ সন্তুস্টি প্রকাশ করেন ডান জুনাইদ ও বাম জুনাইদ।

সংবাদ মহাফিলে আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী বলেন, ২০১৩ সালের ৫ মে ঢাকা নগরীর মতিঝিলে শাপলা চত্বরে ১৩ দফা দাবী নিয়া যখন আমরা গেলাম, তখন বৃহত্তর জামায়াতের বিএনপি শাখার নায়েবে আমীর আল্লামা খোকার সংগে আমাদের চুক্তি ছিল, আমরা মতিঝিলের আশেপাশে ভাঙ্গচুর করিব, আর উনারা আমাদিগের হতাহতদের জন্য টেকাটুকা দিবেন। হাতে ছেপ দিয়া চুক্তি হইছিল যে হর রোজ মুজাহিদ পিছু চাইর হাজার টেকা দেওয়া হবে। জখম হইলে পাব এক লক্ষ টেকা, শাহাদত ঘটলে পাব দুই লক্ষ টেকা, খাওন দাওন দিবে বিএনপি শাখা, পানি আর পিশাব পায়খানার বন্দবস্ত করবেন এরশাদ ছাহেব। আর আমরা নায়েবরা সর পিছু পাব ৫ কুটি টেকা

আবেগঘন কণ্ঠে আল্লামা জুনাইদ সাকী বলেন, কিন্তু আল্লামা খোকা এ ওয়াদার খিলাফ করেছেন। ২০১৩ সালের ৫ মে কালরাত্রিতে ৫০ হাজার মুজাহিদ আহত ও ৫০ হাজার মুজাহিদ নিহত হইয়াছিল। এই বাবদ ১৭৫০ কুটি টেকা ডান জুনাইদ ভাই সাহেব বিল করছিলেন। আল্লামা খোকা সেই বিল পরিশুধ করে নাই, বরং টেকা মারিয়া আমেরিকা পলাইয়া গিয়াছে।

হুহু করে কেদে উঠে ডান জুনাইদ বলেন, বাম জুনাইদ ভাই ঠিক বলছেন। তারা শুধু টেকাই মারে নাই, কুথাকার কুন কানাবাবা শুভ্ররে আনিয়া ৫০ হাজার শহীদ মুজাহিদরে কমাইয়া ৬১তে নামাইয়া আনছিল। শত শত কুটি টেকা উহারা এইভাবে মারিয়া দেওনের তালে আছিল।

লুংগি তুলে ডান জুনাইদের অশ্রু মুছিয়ে দিয়ে বাম জুনাইদ বলেন, বিএনপি শাখার বেঈমানীর শাস্তি আল্লাহ তায়ালা এখন দিতেছেন। কানাবাবা শুভ্রর বানোয়াট ৬১ জন শহীদের তালিকা হতে শহীদরা আবার আল্লাহর কুদরতে জিন্দা হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসতেছেন। বলেন আলহামদুলিল্লাহ।

আল্লাম জুনাইদ বাবুনগরী বলেন, টেকা আমরা আদায় করিয়া ছাড়ব ইনশা আল্লাহ। কিন্তু মতিঝিলে জেহাদের দিনগুলুতে বিএনপি শাখা যেরুপে আমাদিগকে অপমান করছে, সেই মান আমরা কিরুপে ফিরত পাব? খোকা হারামজাদা নান্নার বিরিয়ানী কিংবা ঘরোয়ার খিচুড়ির পরিবর্তে আমাদিগকে রুটি-কলা-খিরাই-বিস্কুট সরবরাহ করিয়াছিল। আরে রুটি-কলা-খিরাই-বিস্কুট খাইয়া কবে কুন মুজাহিদ জেহাদে কামিয়াব হইছে?

নিজ কার্যালয়ে অবরুদ্ধ খালেদা জিয়ার সকালের নাস্তায় উল্লাস প্রকাশ করে জুনাইদ সাকী বলেন, আল্লাহ তায়ালা মাদারে গনতন্ত্রকে উচিত শাস্তি দিতেছেন। এখন উনাকেও রুটি-কলা-খিরাই-বিস্কুট খাইয়া দিন শুরু করতে হইতেছে। তিনি যদি সেই জেহাদের দিনগুলুতে মুজাহিদদিগকে বিরিয়ানী সরবরাহ করতেন, তবে আল্লাহ আজ তার দুর্দিনে তার রিজিকে বিরিয়ানী বরাদ্দ করিয়া পুরস্কৃত করতেন।

হাসতে হাসতে জুনাইদ বাবুনগরী বলেন, রুটি-কলা-খিরাই-বিস্কুট খাইয়া খালেদার আন্দুলন বেশিদুর আগাইবে না।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: