অমিত শাহ নহে, কথা কইছি হান্নান শাহর সংগে: মেডাম

নিজস্ব মতিবেদক

বাকশাল সরকারের ফেসিবাদী পুলিশের ছিটান পিপার স্প্রে হতে একশ গজ দুরে অবস্থান করা সত্তেও অসুস্থ হয়ে পড়া বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার মহিলা আমীর ও জাতীয়তাবাদী শক্তির মালিক আপোষহীন দেশনেত্রী মাদারে গনতন্ত্র বেগম খালেদা জিয়া জেএসসিকে ইনডিয়া হতে ফোন করে শরীল স্বাস্থের খোঁজ খবর নিয়েছেন ভারতীয় জনতা পার্টি ওরফে বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ, এমন দাবীতে দুইদিন অটল থাকার পর এবার এ দাবী থেকে সরে এসে বিএনপি শাখার নেতৃত্ব বলছে, অমিত শাহ নয়, মেডামের শরীল স্বাস্থের খোঁজ নিয়েছেন হান্নান শাহ।

আজ মাদারে গনতন্ত্রের কার্যালয়ে আয়জিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমন দাবী করেন মেডামের প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান।

সংবাদ সম্মেলনে মারুফ কামাল খান বলেন, কি হইছে না হইছে সবই ত আপনারা জানেন। বাকশালের ফেসিবাদী পুলিশ আমরার মেডামরে বিষাক্ত কেমিকেল উইপন দিয়া কালা বানাইয়ালাইছে। উহাদের হিংস্র আক্রমনে মেডাম আজ শয্যাশায়ী। সকাল দেড়টায় উঠিয়া কুনমতে দুটু রুটি কলা খিরাই বিস্কুট সুজি মাখন ফলের রস ভক্ষন করেন, তারপর আবার শুইয়া পড়েন। বিকাল নয়টার দিকে বিয়াই বাড়ি হইতে পাঠান পুলাও মুরগি মাছ আইস কিরিম প্রভৃতি একটু মুখে দিয়া নারী নেতৃদিগের সংগে বসিয়া একটু জীবন মানে জী বাংলা অবলকন করেন। তারপর সন্ধা চারটার মধ্যে আবার ঘুমাইয়া পড়েন। এই বাকশালী কেমিকেল উইপন আমরার মেডামরে শেষ করিয়া দিল। আগের সেই তেজ নাই, কথায় কথায় কল্লা ফালাইবার আস্ফালন নাই, গদিতে গিয়া কতলের হুমকি নাই। মেডাম শুদু মিটিমিটি হাসে আর টিভি দেখে আর গল্প করে।


অমিত নহে, হান্নান

আবেগঘন কণ্ঠে মারুফ সচিব বলেন, এমনেই চলতেছিল জীবন। আতকা একদিন ফোন বাজল। আমি ফোন ধরিয়া কইলাম, হেলু দিস ইজ মারুফ কামাল খান ইস্পীকিং। তখন একটি পুরুষ কণ্ঠ আমায় কহিল, দিস ইজ শাহ ইস্পীকিং। ফোন মেডাম ক দে দে সালা ঘোচু। তখন আমি বুঝলাম, ইহা ইনডিয়া হতে বিজেপির অমিত শাহ ফোন করছে। আমি দৌড়াইয়া গিয়া মেডামরে কহিলাম, মেডাম মেডাম অমিত শাহর ফোন আইছে। মেডাম তখন দৌড়াইয়া আসিয়া ফোন ধরিয়া কহিলেন, আরে শাহ সাহাব কেয়সা হেয় আপ? তবিয়ত ঠিক হায় না? সুনিয়ে জি, আপ লোগ ফরেন ইয়ে বাকশাল ক গদি সে জারা হটা দিজিয়ে।

হুহু করে কেদে উঠে মারুফ কামাল খান বলেন, তখন ঐ পাশ হতে শাহ বলল, মেডাম আপ কুছ ফিকর মত কিজিয়ে। হাম লোগ বাকশাল ক এয়সা হটান হটায়েংগে কে শেখের বেটী কা নাম নিশানা নাহি রহেংগে। আপ কা শরীল স্বাস্থ কেয়সা হেয়? জাকুজি বড় হরলিকস ইত্যাদি রজানা এস্তেমাল করতে রেহনা।

অশ্রু মুছে মারুফ সচিব বলেন, উহার পর ফোন কল কাটিয়া গেল। মেডাম আনন্দে চিতকার করিয়া বললেন, অমিত শাহে দিচ্ছে ডাক, শেখের বেটী নিপাত যাক। অমিত অমিত অমিত ভাই, অমিত ছাড়া উপায় নাই। আতা গাছে তুতা পাখী ডালিম গাছে টিয়া, বাকশালের পুটু মেরে দিবে গ ইনডিয়া। সারে জাহাঁ সে আচ্ছা, হিন্দুস্তান হামারা, গালি দিয়া গেলাম সারা জীবন, তবু ফুনে হেলু বলে তারা।

হাসতে হাসতে মারুফ কামাল খান বললেন, উহার পর প্রেস সচিব হিসাবে আমি ত আর বসিয়া থাকতে পারি না। সোজা বিজ্ঞপ্তি পাঠাইয়া তারায় তারায় রটাইয়া দিলাম যে অমিত শাহ ফোন দিয়া মেডামের শরীল স্বাস্থের খবর লইছে। অতএব বাকশালের পতন এখন সময়ের বেপার মাত্র।

মন খারাপ করে মারুফ সচিব বলেন, এই সালা ইনডিয়া এমন ঘোচু, কি আর বলব। আজ অমিত শাহ বলতেছে সে নাকি মেডামরে কুন ফুন দেয় নাই। তখন আমরা বুঝতে পারলাম, ইনডিয়া হতে হিন্দীতে অমিত শাহ নহে, বরং গাজীপুর হতে উর্দুতে হান্নান শাহ মেডামের সংগে বাতচিত করিয়াছে।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে চক্ষু টিপে মারুফ কামাল খান বলেন, যাহা বাহান্ন তাহাই তিপ্পান্ন। যাহা অমিত তাহাই হান্নান। আসুন এইসব অতীত ভুলিয়া সামনের দিকে আগাই।

One Comment to “অমিত শাহ নহে, কথা কইছি হান্নান শাহর সংগে: মেডাম”

  1. “আতা গাছে তুতা পাখি ডালিম গাছে টিয়া…” কবিকে নোবেল দেয়া দরকার।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: