বেবী গাণ্ডেকে ভারতে আমন্ত্রন জানালেন হাবু সোহেল

দিল্লী মতিনিধি

পরিবেশের অভাবে বাংলা ছেড়ে যুক্ত রাস্ট্রে পাড়ি জমান বাংলার গানের রাজহাঁস ও বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার সংস্কৃতী উপশাখার সংগীত পাতিশাখার শিল্পী বেবী গাণ্ডেকে ভারতে চলে আসার আমন্ত্রন জানিয়েছে বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার মহানগর উপশাখার নায়েবে আমীর ও জাপানী নাগরিক কুনিও হশি হত্যা মামলার সন্দেহ ভাজন বড় ভাই আল্লামা হাবিবুন নবী খান সোহেল ওরফে হাবু সোহেল।

আজ দিল্লীতে দি এমপেরিয়াল হোটেল এন্ড গেষ্ট হাউস থেকে মতিকণ্ঠকে দেওয়া এক অন্তরংগ সাক্ষাতকারে বেবী গান্ডে বরাবর এই আমন্ত্রন জানান আল্লামা হাবু সোহেল।

সাক্ষাতকারে আল্লামা হাবু সোহেল বলেন, ভারতে আত্মগুপন করে আছি আলহামদুলিল্লাহ। আপনারা আমার জন্য দুয়া করবেন।

আবেগঘন কণ্ঠে হাবু সোহেল বলেন, জাপানী নাগরিক কুনিও হশির জন্য বাকশাল সরকারের দরদ দেখিয়া আমি লাজওয়াব। উহাকে কতল করতে না করতেই রেব পুলিশ বিজিবি ডিবির দৌড়ানি খাইয়া দুশমনের দেশ হিন্দুস্তানে আইলাম। ইহা আবার কেমুন গনতন্ত্র?

দেশে বর্তমানে বাক স্বাধীনতা নাই জানিয়ে আল্লামা হাবু সোহেল বলেন, দুই চারটা মনির মারলেই বর্তমানে সরকার অত্যান্ত খারাপ আচরন করে। গ্রেফতার করিয়া অপমান করার চেস্টা করে। রিমান্ডের কথা আর বললাম না। এইভাবে যদি তারা ক্রমাগত মানী লোকের বাক স্বাধীনতা হরন করতে থাকে, তাহলে আমরা হাড লাইনে যাইতে বাধ্য হব।

দিল্লীর লাড্ডু হাবু সোহেল

মানুষ হত্যার সাথে বাক স্বাধীনতার কি সম্পর্ক, জানতে চাইলে হাবু সোহেল বলেন, বুঝেনই ত।

কুনিও হশি হত্যার দায়িত্ব স্বিকারের জন্য আইসিসকে কঠর তিরস্কার করে আল্লামা হাবু সোহেল বলেন, বডি ফালাইলাম আমি আর হাততালি খায় আইসিস। এলাকার পুলাপান যারা জাপানী হত্যা করল, উহাদের হাদিয়া বাবদ বড় গুণ্ডের নিকট বকেয়া টেকা চাইতে গেলাম যখন, বড় গুণ্ডে হাসতে হাসতে আমায় মুঠফুনে বলল, জাপানী মারল আইসিস, তুমায় টেকা দিব কেনে?

হুহু করে কেদে ফেলে হাবু সোহেল বলেন, জাপানীকে যারা ফেলিয়াছে, উহারা টেকার জন্য এখন আমায় দুই বেলা মুঠফুন মারিয়া ধমকায়। আইসিসের কারনে আমায় সমাজ সংসার তেগ করিয়া দুশমনের দেশ দিল্লীতে আসিয়া থাকতে হইতেছে। আমি বাকশাল সরকারের কাছে ইহার বিচার চাই।

অশ্রু মুছে আল্লামা হাবু সোহেল বলেন, দিল্লীতে ভালই আছি আলহামদুলিল্লাহ। গরুর ছদ্মবেশে রাস্তা ঘাটে ঘুরিয়া বেড়াই, ডাবের খোসা চাবাই। মাঝে মধ্যে দোকান হইতে সিংগারা সমচা চিপস বিস্কুট গলা বাড়াইয়া ভক্ষন করি, কেউ কিছু বলে না।

ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মদীর প্রসংশা করে হাবু সোহেল বলেন, নরুর দেশে গরুর জীবন আরাম বড় ভাই, এখন আমার লাগবে একটি নধর তনু গাই।

সলজ্জ হেসে বাংলার গানের রাজহাঁস বেবী গাণ্ডেকে দিল্লী চলে আসার আমন্ত্রন জানিয়ে হাবু সোহেল বলেন, দেশে গান গাওয়ার পরিবেশ নাই। পদে পদে পেট্রল বম, চাপাতি, গ্রেনেড। আজকে জাপানী মরতেছে ত কালকে শিয়াদের তাজিয়া বম পড়তেছে। বেবী গাণ্ডে তাই পরিবেশের সন্ধানে বিদেশে চলিয়া গেছেন। আমি উনাকে বলতে চাই, দিল্লী চলিয়া আসেন। গরু সাজিয়া ঘুরিবেন ফিরিবেন হাম্বা হাম্বা করিবেন, কুন সালা কিচ্ছু কবে না।

আবেগঘন কণ্ঠে আল্লামা হাবু সোহেল বলেন, এলমেল বাতাসে উড়িয়ে দে শাড়ির আছল।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: