সাটিফিকেট চাহিয়া দিষ্টাপ দিবেন না: খন্দকার মাহবুব

নিজস্ব মতিবেদক

সর্বচ্চ আদালতে পাকিস্তানের পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের জাল সনদ পত্র দাখিল করে বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার নায়েবে আমীর রাউজানের রসপুটিন ব্রাদারফাকার সাকার গর্দান রক্ষা করার চেস্টা করতে গিয়ে দেশ ও বিদেশের নানা খেতিমান বেক্তিত্বের নিকট হতে সাটিফিকেট মেনেজ করার অনুরধের চাপে অস্থির হয়ে বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার উকিলে আমীর বেরিষ্টার খন্দকার মাহবুব হোসেন ওরফে ‘সাটিফিকেট খন্দকার’ বলেছেন, সাটিফিকেট চাহিয়া দিষ্টাপ দিবেন না।

আজ সর্বচ্চ আদালতে ব্রাদারফাকার সাকা ও বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর খানকির পোলায়ে নায়েব ও আলবদর কমান্ডার আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের ফাসির রায় বহাল থাকার ঘোষনার পর এক সংবাদ সম্মেলনে সাটিফিকেট খন্দকার এ কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে খন্দকার মাহবুব বলেন, সর্বচ্চ আদালতরে বুকা ভাবছিলাম, কিন্তু তলে তলে উহাদের পেটে পেটে যে এত বুদ্ধির পেচ তা আগে বুঝি নাই। এত যত্ন করিয়া নীলক্ষেত হইতে ব্রাদারফাকার সাকার নামে পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের সাটিফিকেট বানাইয়া দিলাম, সর্বচ্চ আদালত ধরিয়া ফেলল। উহারা এমনই ফেসিবাদী।

আবেগঘন কণ্ঠে সাটিফিকেট খন্দকার বলেন, জাল সাটিফিকেট ধরছেন, ভাল কথা। তাই বলিয়া ভরা মহাফিলে এই কথা ফাস করিয়া দিবেন? এখন দেশ বিদেশ হতে কত খেতনামা বেক্তিত্ব পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের সাটিফিকেট চাহিয়া আমায় জারেজার করতেছে।


সাটিফিকেট চাহিয়া দিষ্টাপ দিবেন না

হুহু করে কেদে উঠে খন্দকার মাহবুব বলেন, সব কথা কি খুলিয়া কওন যায় রে আলফাজ? রায় ঘোষনার কয়েক মিনিট পরেই লন্ডন হতে একজন অত্যান্ত বদরাগী মহিলা আমায় মুঠফুন মারিয়া বললেন, শুন খন্দকার, আমার জন্যি পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের একখানা এমএ পাশ সাটিফিকেট যুগাড় লাগাও। দেখিও আবার বানান ভুল করিও না। আমি উনাকে বললাম, মেডাম কুন বিষয়ে এমএ পাশ করতে চান? উনি বললেন, সব বিষয়েই এমএ পাশ করতে চাই। কুন বিষয় যেন বাদ না থাকে। অর্থনীতী ভুগুল অংক ইতিহাস সব সাটিফিকেটে ঢুকাইয়া দেও। সবগুলুতেই এ প্লাস দিবা। আমি উনাকে পড়ালিখার বেপারটা যখন বুঝাইয়া বলতে গেলাম, উনি তখন রাগারাগি করিয়া বললেন, আমি ক্লাশ নাইনের কাছে অংক শিখেছি, আমায় আর লসাগুর ভয় দেখিয়ে কুন লাভ নেই। এই বলিয়া সেই রাগী মহিলা ফুন কাটিয়া লাল করিয়া দিলেন।

আবেগঘন কণ্ঠে সাটিফিকেট খন্দকার বলেন, ফুন পকেটে ভরিয়া সারতারি নাই, একে একে হাজী সেলিম, মির্জা আব্বাস, শাজাহান খান, মস্তফা সরয়ার ফারুকী সকলেই পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের সাটিফিকেট মাংগিয়া আমায় ফুন মারিয়া অস্থির করিয়ালাইল। যতই উহাদিগকে খরচের ভয় দেখাই, উহারা ততই হাসিয়া বলে, মানি ইজ ন পবলেম।

হাসতে হাসতে খন্দকার মাহবুব বলেন, বিজ্ঞান আমরারে দিছে বেগ আর কাড়িয়া লইছে আবেগ। বিশ্বায়নের এ যুগে কুন কিছুই লুকাল থাকে না, সবই গ্লুবাল। পাকিস্তান হতে নওয়াজ শরীফ ও ইমরান খানও আমায় মুঠফুন মারিয়া পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের সাটিফিকেট চায়।

মন খারাপ করে সাটিফিকেট খন্দকার বলেন, পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আমায় একটু আগে এসএমএস পাঠাইয়া বলছে, উহাকে ১০% করিয়া সাটিফিকেট পিছু বখরা না দিলে সে ঘাপলা করিবে। এইভাবে যদি আয় রুজগার সব বখরা দিয়াই শেষ হইয়া যায়, না থাকবে বাশ না বাজবে বাশরী।

আপাতত কিছুদিন সাটিফিকেটের আবদার না করার অনুরধ জানিয়ে উকিলে আমীর বলেন, আমার পৃন্টারে কালি শেষ। আপাতত সাটিফিকেট চাহিয়া দিষ্টাপ দিবেন না।

2 Comments to “সাটিফিকেট চাহিয়া দিষ্টাপ দিবেন না: খন্দকার মাহবুব”

  1. আমি উনাকে বললাম, মেডাম কুন বিষয়ে এমএ পাশ করতে চান? উনি বললেন, সব বিষয়েই এমএ পাশ করতে চাই। কুন বিষয় যেন বাদ না থাকে। অর্থনীতী ভুগুল অংক ইতিহাস সব সাটিফিকেটে ঢুকাইয়া দেও। সবগুলুতেই এ প্লাস দিবা। আমি উনাকে পড়ালিখার বেপারটা যখন বুঝাইয়া বলতে গেলাম, উনি তখন রাগারাগি করিয়া বললেন, আমি ক্লাশ নাইনের কাছে অংক শিখেছি, আমায় আর লসাগুর ভয় দেখিয়ে কুন লাভ নেই। এই বলিয়া সেই রাগী মহিলা ফুন কাটিয়া লাল করিয়া দিলেন………………………………………. হা হা হা হা হা হা হা …………..পুরাই এপিক……………..দুর্দান্ত……….

  2. সব কথা কি খুলিয়া কওন যায় রে আলফাজ? হি হি হি হি হি…

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: