Posts tagged ‘বসুন্ধরা’

April 18, 2012

হিনা রব্বানী খারকে বিবসনা হওয়ার আহ্বান জানাল কারওয়ানবাজার ও বসুন্ধরা

কূটনৈতিক মতিবেদক

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিনা রব্বানী খারকে বিশ্বে চলমান নানা বৈষম্য ও অবিচারের প্রতিবাদে উলংগ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে দেশের প্রভাবশালী এলাকা কারওয়ানবাজার ও বসুন্ধরা।

আজ পৃথক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান কারওয়ানবাজার ও বসুন্ধরার দুই সর্দার, যথাক্রমে মতিচুর রহমান ও ইমদুদুল হক মেলন।

সংবাদ সম্মেলনে মতিচুর রহমান বলেন, আমরা পুনম পাণ্ডের প্রতিবাদের সময় পাশে ছিলাম। আমরা ভিনা মালিকের প্রতিবাদের সময় পাশে ছিলাম। আমরা পাপিয়া পাণ্ডের প্রতিবাদের সময় পাশে ছিলাম। আমরা হিনা রব্বানী খারের প্রতিবাদের সময়ও পাশে থাকব।

মতিচুর আবেগঘন কণ্ঠে বলেন, সকল বিবসনা প্রতিবাদী নারীর পাশে কারওয়ানবাজার থাকবে।


বাংলাদেশ ক্রিকেট দল পাকিস্তানে না গেলে উলংগ হবেন হিনা

অপর সংবাদ সম্মেলনে বসুন্ধরার সর্দার ইমদুদুল হক মেলন বলেন, হিনা রব্বানী খারকে আমি আদর করে ডাকি হিনা মালিক। তবে সে ভিনা মালিকের চেয়েও রুপসী। আমরা চাই, তিনি পৃথিবীর সকল অন্যায়, সকল অত্যাচার, সকল সন্ত্রাস মারামারি হানাহানির প্রতিবাদে বিবসনা হন।

ইমদুদুল বলেন, বসুন্ধরা বিবসনা নারীদের বাংলা ও ইংরেজী ভাষায় সমর্থন দিতে প্রস্তুত।

কারওয়ানবাজারের উপসর্দার আমিষুল লা “মা”র সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি হিনা রব্বানী খার সম্পর্কে বলেন, পাগলী একটা।

হিনা রব্বানী খারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, বাংলাদেশ পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলতে না এলে তিনি বিবসনা হওয়ার কথা বিবেচনা করে দেখবেন। তবে এ সংবাদ বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের কাছে না জানাতে মতিবেদককে অনুরোধ করেন তিনি।

April 17, 2012

মাসবেপী অনশন করবেন মকসুদ

অনশন মতিবেদক

দেশের প্রভাবশালী এলাকা বসুন্ধরার দুর্নীতির প্রতিবাদে মাসবেপী অনশন করবেন দেশের বিশিষ্ঠ ইতিহাসবীদ, কলামিষ্ট ও বাংলার গান্ধীবাদী আন্দোলনের অগ্র সেনানী সৈয়দ আবুল মকসুদ।

আজ এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষনা দেন মকসুদ।

সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, আপনারা সকলে জানেন, বসুন্ধরা মংলা বন্দরের জেটি বেবহার করে কুটি কুটি টেকার বেবসা করে। কিন্তু তারা লেন্ডিং চার্জ দেয় না। দশ বছর ধরে তারা লেন্ডিং চার্জের পয়সা বাকি রেখেছে। মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ তাদের কাছ থেকে কুটি কুটি টেকা পাওনা। কিন্তু বসুন্ধরা একটি অভিশাপ। তারা টেকাটুকা দেয় না। তারা মাগনা মাগনা মংলা বন্দর বেবহার করে দেশটার পুটু মারছে। কেউ প্রতিবাদ করে না। কেউ কলাম লিখে না। কেউ মানব বন্ধন করে না। বসুন্ধরার কারনে আজ দেশে নিরব দুর্ভিক্ষ চলছে। ক্ষুধার্ত মা কোলের শিশুকে বিক্রি করে দিচ্ছে। ক্ষুধার্ত প্রেমিক প্রেমিকাকে ভাড়া দিচ্ছে পয়ষট্টি টাকায়। এভাবে চলতে পারে না। আমি মাসবেপী অনশন করব।

মাসবেপী অনশন করবেন বাংলার গান্ধী

মাসের ১৬ তারিখে এসে কেন মাসবেপী অনশন করছেন, এ প্রশ্নের জবাবে মকসুদ বলেন, আমি ইংরেজী মাসবেপী অনশন করব না।

বাংলা মাসবেপী অনশন করবেন কি না জিজ্ঞাসার জবাবে মকসুদ বলেন, আমি পুর্ব বংগের মুসলিম। আমি মুসলিম মাস, অর্থাত হিজরী মাস ধরে অনশন করব। তিনি ২৩শে জমাদিউল আউয়াল থেকে ২৯শে জমাদিউল আউয়াল পর্যন্ত আমরন অনশন করবেন বলে মকসুদ জানান।

সাগর-রুনী হত্যাকান্ডের বেপারে কি করবেন প্রশ্ন করা হলে মকসুদ বলেন, আরে ধুত্তেরি সাগর-রুনী।

ডেসটিনি গ্রুপের প্রতারনার বেপারে কি করবেন প্রশ্ন করা হলে মকসুদ বলেন, আরে ধুত্তেরি ডেসটিনি।

আই এস আই কর্তৃক খালেদা জিয়াকে ৫০ কুটি রুপী উপহারের বেপারে কি করবেন প্রশ্ন করা হলে মকসুদ বলেন, আরে ধুত্তেরি আই এস আই খালেদা।

আরও প্রশ্ন করার আগেই উত্তেজিত মকসুদ বলেন, আপনারা এইসব ফালতু জিনিস নিয়ে মাথা গরম করেন কেন। বসুন্ধরা লেন্ডিং চার্জ দেয় না, এর গুরুত্ব কি আমনেরা আমাত্তে বেশি বুজেন?

পরে আইসকৃম খেয়ে মকসুদ শান্ত হন। এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি হাসিমুখে বলেন, না, আমার পোষা ছাগল পুটু অনশন করবে না। সে না খেলে দুধ দিবে কি করে? তার দুধ না খেলে রাতে আমার ঘুম হয় না।

April 11, 2012

গ্রেফতার আতংকে দিশাহারা বাচ্চু

বিনোদন মতিবেদক

গ্রেফতার আতংকে দিশেহারা হয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বাংলাদেশের রক ষ্টার আইয়ুব বাচ্চু।

আজ এক গোপন স্থান থেকে মতিবেদকের সাথে মুঠোফোনে কথোপকথনে নিজের আতংকের কথা তুলে ধরেন আইয়ুব বাচ্চু।

বাচ্চু বলেন, ‘পুলিশের চোখের সামনে পালিয়েছে বাচ্চু রাজাকার। পালিয়ে সে ভারত চলে গেছে। এখন পুলিশ আমাকে বাচ্চু রাজাকার সাজিয়ে গ্রেফতার করতে চায়।’

কথা বলার সময় আবেগ গ্রস্থ হয়ে পড়েন বাংলার এই প্রবাদপ্রতিম গিটারিষ্ট।

আইয়ুব বাচ্চু বলেন, পুলিশের মহাপরিচালক পরিচয় দিয়ে লিটন নামের এক বেক্তি তাকে গতকাল ফোন করে। বলে, বাচ্চু রাজাকার পালিয়েছে তো কি হয়েছে। তুই তো আছিস। তুই বাচ্চু। তোকেই ধরে চালান করে দিব।

তিনি বলেন, জবাবে আমি বলি, সার আমি তো বাচ্চু রাজাকার নই। আমি আইয়ুব বাচ্চু। জবাবে লিটন নামের পুলিশের মহাপরিচালক বলে, যার নাম আইয়ুব, সে একটি চলন্ত রাজাকার। যাদের বাপ মা ছেলের নাম রাখে আইয়ুব ইয়াহিয়া জুলফিকার ভুট্টো জিয়াউল হক গোলাম আজম, তাদের সমস্যা আছে। তাছাড়া রিমান্ডে নিয়ে তোকে দুইটা দিন ঠিকমত পিটালে তুই নিজেই স্বিকার করবি যে তুই বাচ্চু রাজাকার।

দৌড়ের উপর বাচ্চু

আইয়ুব বাচ্চু আবেগঘন কণ্ঠে বলেন, সারাটা জীবন রাজাকারদের খানকির পুলা বলে গালি দিয়ে এসেছি, আর আজ আমাকে বাচ্চু রাজাকার হওয়ার ভয়ে পালিয়ে বেড়াতে হচ্ছে।

তিনি মতিবেদকের কাছে অনুরোধ করেন, তার ঘটনা নিয়ে মতিকণ্ঠে লিখতে। আইয়ুব বাচ্চু বলেন, কোন পত্রিকাই আমার খবরটি ছাপতে চাইছে না। সাতক্ষীরায় হিন্দুদের বাড়ি পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনার মতই সব পত্রিকা আমার বেপারটিকে মাটিচাপা দিতে চায়। এখন মতিকণ্ঠই আমার ভরসা।

লিটন নামের পুলিশের ঐ মহাপরিচালকের বিরুদ্ধে বেবস্থা নিতে সরকারের প্রতি আবেদন জানিয়ে বাচ্চু বলেন, তুমি কেন বোঝ না তোমাকে ছাড়া আমি অসহায়? আমার সবটুকু ভালবাসা তোমায় ঘিরে। আমার অপরাধ যতটুকু ছিল তোমার কাছে, তুমি ক্ষমা করে দিও আমায়।

ওদিকে এক সংবাদ সম্মেলনে দেশের প্রভাবশালী এলাকা বসুন্ধরার সর্দার ইমদুদুল হক মেলন দাবী করেছেন, গ্রেফতার করার জন্য একটি যুতসই বাচ্চু রাজাকার হাতের নিকটেই রয়েছে।

ইমদুদুল বলেন, এক বাচ্চু দেশান্তরে, আরেক বাচ্চু কারওয়ানবাজারে।

তিনি বলেন, আপনারা সবাই জানেন, মতিচুর রহমান আজমীর ডাকনাম বাচ্চু। আর তার মত রাজাকার এ পর্যন্ত আর একটিও জন্মায়নি। সে দেশের সবচেয়ে বড় শত্রু। তাই তাকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে বন্দুকযুদ্ধে নিহত করা প্রয়োজন।

মেলন দাবী করেন, মতিচুর রহমানই প্রকৃত বাচ্চু রাজাকার।

পৃথক সংবাদ সম্মেলনে মতিচুর রহমান ইমদুদুলের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার ডাক নাম বাচ্চু নয়, টিক্কা। এ সময় তার মুঠোফোনে কল এলে তিনি বলেন, হেলো হেলো মতিচুর রহমান টিক্কা বলছি? আপনি কে বলছেন? ও মিলি? পরে কল দিচ্ছি। এখন বেস্ত।

March 6, 2012

মওদুদ আগুন নিয়ে খেলেছেন: মেলন ও মতিচুর

যুদ্ধ মতিবেদক

দীর্ঘদিন যাবত অস্ত্রবিরতির পর আজ এক সংবাদ সম্মেলনে হাতে হাত ধরে হাসিমুখে অংশ নেন বসুন্ধরার সর্দার ইমদুদুল হক মেলন ও কারওয়ানবাজারের সর্দার মতিচুর রহমান।

ইমদুদুল হক মেলন বলেন, মালিকে মালিকে যুদ্ধ হয় সর্দারদের মান যায়। আমরা আর পানিপথের যুদ্ধ করব না। আজ থেকে আমরা বন্ধু। একটাই কথা আছে বাংলাতে, মুখ আর বুক বলে একসাথে, সে হল, বন্ধুউউউউউ।

মতিচুর রহমান বলেন, কিবলা অভিমুখে এস্তেঞ্জা করে আমি ভুল করেছি। মেলন আমার ভুল ধরিয়ে দিয়েছে। আমি ভুল শুধরে নিয়েছি। তওবা পড়েছি। আমি আপনাদের মাধ্যমে দেশবাসীর কাছে বলতে চাই, আস্তাগফিরুল্লাহ রাব্বি মিন কুল্লে জাম্বিউউউউউউ।

মেলন বলেন, পানিপথের যুদ্ধ আপাতত শেষ। আমাদের পানিপথ আজ একই সুতায় গাথা।

মতিচুর বলেন, জোট বাধ তৈরী হও যুদ্ধ নয় তুল আওয়াজ।

পানিপথের যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষনা করলেন মেলন ও মতিচুর

মেলন বলেন, নিজেদের মাঝে হানাহানি করতে গিয়ে আমরা ভুলে গেছি, আমাদের দুজনের কমন শত্রু তসলিমা নাসরিনের কথা। সে একটি অভিশাপ।

মতিচুর বলেন, তসলিমা তার ম গ্রন্থে আমাদের নামে উলটা পালটা কথা লিখেছে। সে কখনও বলে ম-য় মেলন ঐ আসছে তেড়ে, কখনও বলে ম-য় মতিচুর আসছে তেড়ে। প্রকৃত পক্ষে ম দিয়ে মওদুদ হয়।

মেলন বলেন, মওদুদ আহমদ আগুন নিয়ে খেলেছেন।

মতিচুর বলেন, মওদুদ আহমদ আগুন নিয়ে আবারও খেলতে চান।

এদিকে এক পাল্টা সংবাদ সম্মেলনে মওদুদ আহমদ দাবি করেন, তার নাম মওদুদ আহমদ নয়।

মওদুদ বলেন, আমার নাম পঁওদুদ আহমদ। বোকা লোকে আমার নাম ভুল করে মওদুদ উচ্চারন করে। এখান থেকেই সম্ভবত বসুন্ধরা ও কারওয়ানবাজারের দুই সম্পাদক আমার বিরুদ্ধে কুৎসা রটানর রসদ সংগ্রহ করেছেন। আমি আবারও বলতে চাই, আমার নাম মওদুদ নয়, পঁওদুদ।

ওদিকে সুইডেন থেকে এক টুইটার বার্তায় বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন জানান, আগামী বইমেলায় তিনি ‘পঁ’ শিরোনামে একটি আত্মজীবনী মুলক গ্রন্থ প্রকাশ করবেন।

%d bloggers like this: