Posts tagged ‘মখা’

November 14, 2013

সরকারের কুতসিত বিভতসতার জবাব আমাদের কাছে আছে: রিজভী

নিজস্ব মতিবেদক

অগ্নি সংযোগ করে নিরিহ মানুষ হত্যার উসকানি দানের অভিযোগে আটক বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার উকিলে আমীর মওদুদ আহমদ, উকিলে আমীর রফিকুল মিয়া, আংগুলে আমীর মুবাইলে কুকাম আনোয়ার উরফে মতি কণ্ঠ আনোয়ার উরফে এম কে আনোয়ার, খাজায়ে আমীর আবদুল মিন্টু ও খাদেমে আমীর শিমুল বিশ্বাসকে আদালত কতৃক আট দিনের রিমান্ড মনজুর করায় তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বিএনপি শাখার নায়েবে দফতর ও বাকশালের উপদেস্টা গওহর রিজভীর সহোদর আল্লামা রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন, সরকারের এই কুতসিত বিভতসতার জবাব আমাদের কাছে আছে।

আজ বিএনপি শাখার নয়া পল্টন কার্যালয়ে আয়জিত এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ কথা বলেন।

আল্লামা রিজভী বলেন, আপনারা জানেন, আমাদের আন্দুলন সংগ্রামের শক্তি বেশী নাই। বৃহত্তর জামায়াতের খুনী কেডারগুনোই আমাদের ভরসা। ত আমরা নায়েবে আমীররা সকলে গিয়া মাদারে গনতন্ত্রকে বললাম, মেডাম হরতাল দিয়েন না। মেডাম বললেন, বৃহত্তর জামায়াতের রফিকুল খানের হুকুম হরতাল দিতে হবে। কাজেই হরতাল হরতাল। হরতাল শুরু হয়ে গেল।


কাচ্চা চাবা যাউংগা

আবেগঘন কণ্ঠে রিজভী বলেন, হরতাল দিলে পাবলিক মানে না। বিশেষ করে গরিবের দল এই বেআদবি বেশী করে। উহারা টেকাটুকা রুজগারে হরতাল অমান্য করে বাইর হয়। আমাদের নায়েবে আমীর বৃন্দ তাই কেডারদিগকে বেআদবির শাস্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়া কারওয়ানবাজারের সর্দারের এডাল্ট পার্টিতে চলিয়া গেলেন। আর কথা নাই বার্তা নাই আতকা পুলিশ আসিয়া উহাদিগকে চুর ডাকাতের নেয় ধরিল।

অশ্রু মুছে রিজভী বলেন, বিশ পচিশটা গরিব পুড়িয়া মরছে, তাই বলিয়া গ্রেফতার করবেন? রিমান্ডে নিবেন? এ কি কুতসিত বিভতসতা? পৃথীবির অন্য কুন দেশে গরিব পুড়াইয়া মারলে পুলিশ বা আদালত এইসব কুতসিত বিভতস আচরন করে না। একমাত্র বাকশালের বাংলাদেশেই ইহা সম্ভব।

সরকারের এই কুতসিত বিভতসতার জবাব দেওয়ার প্রত্যয় বেক্ত করে রিজভী বলেন, আমরা এই আঘাত কুতসিত বিভতসতার ইস্কেলে শতগুনে ফিরাইয়া দিব।

বিশেষ নৃশংস স্কোয়াড ‘ফেন্টাষ্টিক ফাইভ’কে এই শতগুন বেশী কুতসিত বিভতস জবাবে বেবহার করা হবে কিনা, এ প্রশ্নের সরাসরি উত্তর না দিয়ে রিজভী বলেন, বুঝেনই ত।

এদিকে বিএনপি শাখার নায়েবে আমীর বৃন্দকে রিমান্ডে নেওয়ার বেপারে স্বরাস্ট্র মন্ত্রী ও বৃহত্তর জামায়াতের বাকশাল শাখার আমীর মখা আলমগীরের সংগে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, জনগনের দাবী পুরন করতেই রিমান্ডের আবেদন করলাম।

মতি-নীলসেন আয়জিত জনমতি জরিপের কথা উল্লেখ করে মখা মন্ত্রী বলেন, ৯০% মুসলমানের দেশে চালিত জরিপে দেখা গেছে, ৯০% লোকই এই মুহুর্তে বিএনপি শাখার নায়েবে আমীরদিগকে ডিম দেওয়ার পক্ষে অভিমত বেক্ত করেছে। জনগনই সকল ক্ষমতার উতস। আমি শুধু ডিম সাপ্লাই দিব।

June 27, 2013

হাম সাথ সাথ হায়: মখা

চাদপুর মতিনিধি

অবশেষে লাইনে এসেছেন বৃহত্তর জামায়াতের বাকশাল শাখার ফেসিবাদী আমীর ও স্বরাস্ট্র মন্ত্রী ডা. মখা আলমগীর।

বুধবার চাদপুরের কচুয়া উপজেলার সাচার বাজারে ইসলামী বেংকের ২৭৭তম শাখা উদ্বোধন কালে ওই এলাকার সংসদ সদস্য মখা বলেন, আমি লাইনে এসেছি।

মখা মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ইসলামী বেংক কোনো বেক্তিগত প্রতিষ্ঠান নয়। এই বেংক সকলের। বাংলার মুসলিম, বাংলার হিন্দু, বাংলার বৌদ্ধ, বাংলার খৃস্ঠান, সকলের বেংক ইসলামী বেংক। তাই ইসলামী বেংকের আহ্বানে সরকার যেমন লাইনে আসিয়াছে, আপনারাও তেমন লাইনে আসবেন।

আবেগঘন কণ্ঠে মখা বলেন, একাত্তর সালে কি সুন্দর সকলে মিলিয়া মিশিয়া ছিলাম। আমি ছিলাম ময়মনসিংহের ডিছি। সকলে খাতির করিত, সম্মান করিত। লম্বা ফর্সা পাকিস্তানী অফিসাররা আসিয়া আমার গালে ঠোনা দিয়া বলিত, গুড বয়। তখন দেশে ইসলামী বেংক ছিল না, কিন্তু শান্তি ছিল। আজ দেশে শান্তি নাই, কিন্তু ইসলামী বেংক আছে। সময় আসিয়াছে ইসলামী বেংক ও শান্তি উভয় প্রতিষ্ঠার। তাই এক সংগে কাজ করিয়া যাইতে হবে।

আমি লাইনে এসেছি, আপনারাও আসুন: মখা

শাহবাগের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে মখা বলেন, সুন্দর চলিয়া যাইতেছিল দিন। মাঝখান হতে কিছু গন্ডগল কারী আসিয়া শাহবাগে খাড়া হইয়া বলল, ইসলামী বেংক নিশিদ্ধ করতে হবে, বর্জন করতে হবে। আরে বেটা অভিশাপ, ইসলামী বেংক কি বলদের পুটু দিয়া বাইর হইছে যে বর্জন করব? আমার ভিতরে বাহিরে অন্তরে অন্তরে ইসলামী বেংক। উহাকে নিশিদ্ধ করব কুন দুঃখে?

সকলকে অবিলম্বে ইসলামী বেংকের কচুয়া থানার সাচার বাজার একাউন্টে টাকা জমা করার আহোভান জানিয়ে মখা বলেন, এই খানে টেকা দিয়া শান্তি বজায় রাখুন। কচুয়া থানার সাচার বাজারকে আমি প্রাচীন রোম নগরীর নেয় বেবসা বানিজ্যের কেন্দ্রে পরিনত করব। যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সংগে আমার কথা হইছে, কালকে থেকে অল রোডস লিড টু সাচার বাজার। দেশের যে কুন রাস্তায় নামলেই সাচার বাজারে আসতে হবে। আর সাচার বাজারে একবার আসিলে টেকা রাখতে হবে ইসলামী বেংকেই।

ফিতা কেটে বেংক উদ্বোধন করে মখা আলমগীর ইসলামী বেংকের বেবস্থাপনা পরিচালক আবদুল মান্নানকে আলিংগন করে বলেন, জানু মেরি জান মে তেরে কুরবান তু মেরা মে তেরি জানে সারা পাকিস্তান।

Tags:
April 24, 2013

সব দুষ বিএনপির: মখা

নিজস্ব মতিবেদক

বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বাকশাল শাখার খানকির পোলায়ে আমীর ও স্বরাস্ট্র মন্ত্রী ডা. মখা আলমগীর বলেছেন, সাভারে রানা প্লাজা ধ্বসিয়া পড়ার জন্য বৃহত্তর জামায়াতের বিএনপি শাখা দায়ী।

আজ বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে মখা মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মখা আলমগীর বিবিসিকে বলেন, রানা প্লাজা বরাবরই ছিল একটি মজবুত কারখানা। বাকশালী যুব লীগের সোহেল রানার নেয় কারখানার বিল্ডিঙ্গ ছিল লৌহদন্ডের নেয় শক্ত। কিন্তু গতকাল এই বিল্ডিঙ্গে বিএনপি শাখার কিছু হরতাল সমর্থক ফাটল ধরা দেওয়ালের বিভিন্ন স্তম্ভ এবং গেট ধরিয়া লাড়াচাড়া করেছে।

আবেগঘন কণ্ঠে মখা মন্ত্রী বলেন, একটা বিল্ডিঙ্গ কি এমনে এমনে ভাঙ্গিয়া পড়ে? বাতাসে লাড়া লাগিয়া পড়ে? না। বিল্ডিঙ্গ ভাঙ্গে যখন বিএনপি শাখার লোকজন বিভিন্ন স্তম্ভ ও গেট ধরিয়ে লাড়াচাড়া করে। আপনারাই বলেন, ফাটল ধরা দেওয়ালের স্তম্ভ তাদের কি ক্ষতি করিয়াছিল যে লাড়াচাড়া করতে হবে?

স্বরাস্ট্র মন্ত্রী বলেন, বিএনপি শাখার সদ্য কারামুক্ত উকিলে আমীর মওদুদ আহমদ, নায়েবে আমীর বরকতুল্লাহ বুলু ও শহীদুদ্দিন এনিকে সাভারে রানা প্লাজার স্তম্ভ ধরিয়া লাড়া দিতে দেখা গেছে। এদের আবার জেলে ঢুকান হবে, চিন্তার কিছু নাই।

রানা প্লাজার ভবন নির্মানে ত্রুটি ও দুর্নীতির প্রসঙ্গ তুলে ধরা হলে মন্ত্রী বলেন, আরে দুর্নীতির কারনে কবে কুথায় বিল্ডিঙ্গ ভাঙ্গিয়া পড়ল? আমি কয়েক দশক পাকিস্তান ও বাংলাদেশে সরকারী চাকরি করলাম, দুর্নীতির কারনে বিল্ডিঙ্গ ভাঙ্গলে এই দুই দেশে কুন বিল্ডিঙ্গই আস্তা থাকত না। বিল্ডিঙ্গ ভাঙ্গে শুধু দুইটি কারনে। এক, বিএনপি শাখার লোক বিল্ডিঙ্গের স্তম্ভ ও গেট ধরিয়া লাড়াচাড়া করলে, দুই, দেশে বেলাল্লাপনা বৃদ্ধি পাইলে।

রানা প্লাজার মালিক যুব লীগ নেতা সোহেল রানাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না কেন জানতে চাইলে মখা মন্ত্রী বলেন, দেশে তেল নাই গেস নাই পানি নাই বিদ্যুত নাই খালি হরতাল নাশকতা হেফাজত শাহবাগ, এর মধ্যে সোহেল রানারে গ্রেফতার করা ঠিক হবে না।

Tags:
April 12, 2013

সবই ভুল বুঝাবুঝি: মখা

নিজস্ব মতিবেদক

চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে গতকাল আওয়ামী লীগ কর্মীদের উপর বৃহত্তর জামায়াতের হামলায় ৪০ জনের মৃত্যু ও শতাধিক আহতের সংবাদের প্রতিক্রিয়া বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বাকশাল শাখার আমীর ও স্বরাস্ট্র মন্ত্রী ডাক্তার মখা আলমগীর বলেছেন, সবই ভুল বুঝাবুঝি।

আজ এক সংবাদ সম্মেলনে মখা এ কথা বলেন।

মখা মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ জনগনের দল। তাই আওয়ামী লীগের নেতারা প্রায়ই জনগন নিয়া মিছিল মিটিং করার চেস্টা করে। অপরদিকে বৃহত্তর জামায়াত খানকির পুলাদের দল। তারা মিছিল মিটিং মারামারি খুনাখুনি সকলই প্রশিক্ষিত কেডার দিয়া করে। জনগনের সংগে কেডারের সংঘর্ষ হলে পাচ দশটা লাছ পড়বেই। ইহা হলমার্কের চার হাজার কুটি টেকার মত, কুন সমস্যাই নহে।

আবেগঘন কণ্ঠে স্বরাস্ট্র মন্ত্রী মখা বলেন, যেখানে আমরা মন্ত্রী মিনিষ্টাররা জামায়াতের নেতানেত্রীদের সংগে সকালে পরটা দিয়া খাসির পায়া, দুপুরে সাদা চিকন চালের ভাতের সংগে মুংগ ডালে খাসির মাথা আর রাইতে খাসির বারবিকিউ সালাদ দিয়া খাই, ফটিকছড়ির পেয়ারু গুন্ডা কাজীর হাট মাদ্রাসার পাশে মিছিল করে কুন সাহসে? আরে বেটা মাদ্রাসার পাশে কি কুন জনগনের পুলা মিছিল মিটিং করতে পারে? মাদ্রাসার পাশে গিয়া জয় বাংলা বললে কি তারা আংগুল চুশবে? আমি ফটিকছড়ি থাকলে আমিও তুরে কুপাইতাম।

পেয়ারুর প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে মখা আলমগীর বলেন, সে মনে করছে সে স্বাধীন বাংলাদেশে বাকশাল শাসন আমলে বাস করে। সে ভুল বুঝিয়াছে। সবই ভুল বুঝাবুঝি।

এ বেপারে কি বেবস্থা নেওয়া হবে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, হেফাজত খারাপ কিছু করে নাই। আমরা তাদের কর্মকান্ডে সন্তুষ্ট। যেসব লীগ কুপাকুপির কারনে এন্তেকাল করছে, তাদের লাছ সংগ্রহ করিয়া স্বচ্ছ, নিরপক্ষে ও আন্তর্জাতিক মানের দাফনের বেবস্থার জন্য আমি পুলিশ ও বিজিবিকে নির্দেশ দিয়েছি।

হেফাজতের হাতে আওয়ামী লীগ সমর্থকদের ধারাবাহিক হত্যার কোন প্রতিকার হবে কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, পনার কুটি লোকের দেশে আল্লাহর রহমতে লীগের কুন অভাব নাই। দশটা মরলে আরও একশটা পাওয়া যাবে।

ফটিকছড়ির বিএনপি শাখার নেতাদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে, এ কথা জানিয়ে মখা বলেন, বৃহত্তর জামায়াত যেমন কুন কিছু ঘটলেই হিন্দুর বাড়িতে হামলা করে, আমরাও তেমনি জামায়াত হেফাজতের দুষ্টামির পর বিএনপি শাখার নেতারে জেলে ঢুকাইয়া পুন্দাব।

Tags:
%d bloggers like this: