Posts tagged ‘সৈয়দ’

September 3, 2013

জাতীয় নেতা ওয়াক্কাসের মুক্তি না দিলে অনশন: খালেদা

নিজস্ব মতিবেদক

বাকশালী সরকারের পুলিশ কতৃক হাটহাজারী মাদ্রাসা কেন্দ্রীক অরাজনৈতিক জংগী সংগঠন হেফাজতে ইসলামীর নায়েবে আমীর মুফতি ওয়াক্কাসের গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বৃহত্তর জামায়াতে ইসলামীর বিএনপি শাখার মহিলা আমীর ও জাতীয়তাবাদী শক্তির মালিক আপোষহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, অবিলম্বে জাতীয় নেতা ওয়াক্কাসের মুক্তি না দিলে আমি অনশন করব।

আজ গুলশানে মহিলা আমীরের কার্যালয়ে আয়জিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ হুমকি দেন বেগম জিয়া।

খালেদা জিয়া বলেন, আমাদের দেশে খুব বেশী জাতীয় নেতা নাই। যখন আমরা দুই পাকিস্তান এক ছিলাম, তখন আমাদের জাতীয় নেতা ছিলেন আল্লামা মওদুদী। কিন্তু তারে নেতা বললে সমাজে নানা সমস্যা দেখা দেয়, লোকজন আড়ে আড়ে চায়। তাই আমরা সাধারনত তার নাম না নিয়া বলি, আমাদের জাতীয় নেতা ভাসানী। এরপর পাকিস্তান ভেংগে দুই টুকরা হল। পুর্ব টুকরার প্রথম জাতীয় নেতা একাত্তরের রেম্ব শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। তার এনতেকালের পর দির্ঘ দিন পাকিস্তানের পুর্ব টুকরায় কুন জাতীয় নেতা আছিল না। গতকাল বাকশালের পুলিশের গ্রেফতারের মাধ্যমে প্রমান হইল, আমাদের নতুন জাতীয় নেতা মুফতি ওয়াক্কাস।

কান্নায় ভেংগে পড়েন খালেদা

আবেগঘন কণ্ঠে বেগম জিয়া বলেন, আমাদের জাতি আজ দুই ভাগে বিভক্ত। এক ভাগ নাস্তিক বাকশালের পক্ষে, অন্য ভাগ তৌহিদী পাকিস্তানের পক্ষে। সমগ্র জাতিকে দিক নির্দেশনা দেওয়ার মত একজনই ছিলেন। তিনি হেফাজতে ইসলামীর নায়েবে আমীর মুফতি ওয়াক্কাস। অথচ তাকেই কিনা বাকশালী ঘোচুর দল হাজতে নিয়া ডিম দিতেছে।

এক পর্যায়ে কান্নায় ভেংগে পড়ে মহিলা আমীর বলেন, আজ আমার মন ভাল নেই।

বাংলাদেশের সর্বাপেক্ষা অভিজ্ঞ অনশন বিশেষজ্ঞ এবং উপমহাদেশের প্রখ্যাত ইতিহাসবীদ, কলামিষ্ট ও গান্ধীবাদী আন্দলনের প্রবাদপুরুষ সৈয়দ আবুল মকসুদ খালেদা জিয়াকে অনশনের বেপারে সর্ব প্রকার সহযোগীতার ঘোষনা দিয়ে বলেন, সামিনা মিনা এহ এহ ওয়াক্কাস ওয়াক্কাস এহ এহ সামিনা মিনা জাংগালেওয়া ইটস টাইম ফর আফৃকা।

এর অর্থ কি জানতে চাইলে মকসুদ বলেন, ইহা মুফতি ওয়াক্কাসরে লয়ে প্রনীত কলমবিয়ার শিল্পী শাকেরার গান। সারাদিন গাই।

July 30, 2013

খালি তথ্য না, গন্ধও আছে: সৈয়দ আশরাফ

নিজস্ব মতিবেদক

বাকশালের নায়েবে আমীর ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, সামনে নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচনে বাকশাল পুনরায় জয় লাভ করবে। এই বেপারে আমাদের কাছে খালি তথ্য না, গন্ধও আছে।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবী করেন সৈয়দ আশরাফ।

সংবাদ সম্মেলনে সৈয়দ আশরাফ বলেন, আমৃকায় বসিয়া বাংলার নির্বাচনে বাকশালের জয় নিয়া তথ্য সংগ্রহ করেছেন বাকশালের জয়। জয় নিয়া জয়ের কাছে তথ্য আছে। আর জয় নিয়া আমার কাছে আছে গন্ধ। জয়ের তথ্যের সংগে জয়ের গন্ধ যোগ করলে কি হয়? বলেন আপনেরা। কি হয়?

এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকরা সৈয়দ আশরাফের প্রশ্নের উত্তর দিতে না পেরে চুপ করে থাকেন।

আবেগঘন কণ্ঠে সৈয়দ আশরাফ নিজের প্রশ্নের উত্তর নিজেই দিয়ে বলেন, তথ্যের সংগে গন্ধ যোগ দিলে পাওয়া যায় আনন্দ।

আমি গন্ধ পাই, আপনারা পান না? : আশরাফ

সংবাদ সম্মেলনে সৈয়দ আশরাফের পাশে দফতর বিহীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ও যুগ্ম নায়েবে আমীর মাহবুবুল আলম হানিফকে নাক কুচকে বসে থাকতে দেখা যায়।

সৈয়দ আশরাফ তাদের প্রশ্ন করেন, আমি ত গন্ধ পাই, আপনারা গন্ধ পান না?

এ সময় সুরঞ্জিত ও হানিফ মুখ কাল করে বলেন, জি ভাইসাব, পাই। খুব সোন্দর গন্ধ।

June 19, 2013

রবী ঠাকুরের ঝাল আমার উপর ঝাড়া হইছে: আবুল

নিজস্ব মতিবেদক

বিশ্ব বেংকের পর্যবেক্ষকগন পদ্মা সেতু দুর্নীতি মামলার তদন্ত নিয়ে যে প্রতিবেদন দিয়েছে, সেটি আন্তর্জাতিক গুন্ডামির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন।

আজ এক সংবাদ সম্মেলনে আবুল এ কথা বলেন।

আবুল হোসেন বলেন, বিশ্ব বেংকের কুখ্যাত লুইস বেক্তিত্ব লুইস মোরেনো ওকাম্পোর দাদী ভিক্টরিয়া ওকাম্পোকে রবী ঠাকুর যৌন হয়রানী করিয়াছিলেন। একদিন নিরালায় তিনি ভিক্টরিয়াকে বাগে পাইয়া বুক টিপিয়া দিছিলেন। সেই রাগ তারা বংশ পরম্পরায় বহন করিয়া চলতেছে। রবী ঠাকুর বাহাত্তর বতসর পুর্বেই আল্লাহর পেয়ারা হয়েছেন। তার উপর প্রতিশুধ নেওয়ার কুন সুযোগই আর নাই। সেই রাগ লুইস আমার উপর ঝাড়তেছে। দুর্নীতী ফুর্নীতী কিছুই নহে, এ হল গিয়া প্রতিশুধ।

বুকে টিপ দিল রবী, আর আমার উপর শুধ লবি? : আবুল

আবেগঘন কণ্ঠে আবুল বলেন, আমার অপরাধ আমি পদ্মা সেতুর নাম রবী ঠাকুর সেতু রাখার প্রস্তাব দিয়াছিলাম। তার পর হইতেই বিশ্ব বেংক আমার পুটুতে আংগুল চালনা শুরু করে। আরে দুর্নীতী কি আমি খালি পদ্মা সেতু লইয়াই করছি? এর আগে বিশ্ব বেংকের কত কত প্রকল্পের কুটি কুটি টেকা কমিশন খাইলাম, তারা কুন আপত্তি করে নাই। কিন্তু এইবার রবী ঠাকুরের নামে সেতু করতে গিয়া হইলাম অপমান।

লুইস মোরেনো ওকাম্পোকে উদ্দেশ করে আবুল বলেন, লাইনে আসুন। অতীত ভুলে সামনের দিকে তাকান। রবী ঠাকুরের উপর রাগ আপনি শর্মিলা ঠাকুর বা সাঈফ আলী খানের উপর ঝাড়েন। আমার সংগে আপনার কিসের কুন্দল? রবীর হাতে হয়রান আপনার দাদী, আর আবুল হোসেন হইল অপরাধী। হোয়াট ইশ দিশ?

এ বেপারে বিশ্ববেংকের পর্যবেক্ষক লুইস মোরেনো ওকাম্পোর সংগে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আবুল ইজ দি নিউ ঠাকুর। আর্জেন্টিনাতে মোর দাদীর কবর ডালিম গাছের তলে, তিরিশ বছর ভিজায়ে রেখেছি দুই নয়নের জলে। রবী ঠাকুরের দুষ্টামির দাম বাংগালী জাতিকেই পরিশুধ করতে হবে।

May 11, 2013

খোকা বলছেন গজব, মকসুদ বলছেন ষড়যন্ত্র

নিজস্ব মতিবেদক

রানা প্লাজা ধ্বস ও আসন্ন ঘুর্নিঝড়কে বাংগালী জাতির উপর আল্লাহর গজব হিসাবে ঘোষনা করেছেন বৃহত্তর জামায়াতের বিএনপি শাখার নায়েবে আমীর আল্লামা সাদেক হোসেন খোকা।

আজ এমপেরিয়াল হোটেল এন্ড গেষ্ট হাউসে আয়জিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন আল্লামা খোকা।

খোকা বলেন, বাকশালের সবচেয়ে প্রভাবশালী সদস্য যুবলীগের সাভার অঞ্চলের আমীর সোহেল রানার রানা প্লাজা বাতাসের ঠেলায় তাসের ঘরের মত হুড়মুড় করিয়া ভাংগিয়া পড়ল। অথচ আশেপাশে কুন বিলডিঙ্গে কুন সমস্যা দেখা দেয় নাই। কেন এইরুপ ঘটল? কারন ইহা আল্লাহ পাকের গজব।

আবেগঘন কণ্ঠে খোকা বলেন, বৃহত্তর জামায়াতের যাবতীয় খানকির পোলায়ে আমীরদিগকে প্রহসনের বিচারের নামে জেলে নানা বিলাস বেসনের বন্দবস্ত করার শাস্তি হিসাবেই আল্লাহ এই গজব নাজিল করেছেন। তাদের অন্তত এক বছর আগে ঝুলাইয়া দিলে এইসব গজব পড়ত না। অহেতুক বিলম্ব করার কারনে ক্ষিপ্ত হয়ে আল্লাহ আইন নিজের হাতে তুলিয়া নিছেন। যত দ্রুত সম্ভব গোলাম আজম নিজামী ইহাদিগকে ফাসিতে ঝুলাইয়া জাতিকে এই গজবের হাত হতে রক্ষা করতে হবে।

পাকিস্তান আমলের গজব সুচিত্রা সেন

এদিকে এক পৃথক সংবাদ সম্মেলনে উপমহাদেশের বিশিষ্ঠ ইতিহাসবীদ, কলামিষ্ট ও গান্ধীবাদী আন্দলনের প্রবাদ পুরুষ সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেছেন, আসন্ন ঘুর্নিঝড় ‘মহাসেন’ কুন গজব নহে, ইহা ষড়যন্ত্র।

ইতিহাস হতে তথ্য উপাত্ত তুলে ধরে মকসুদ বলেন, বাংলা পুর্বে ছিল পাল রাজাদের তালুক। কিন্তু ইনডিয়া হতে সেন রাজারা আসিয়া সোনার বাংলা ছারখার করে। রামুর পাচ দশটা পেগডা পুড়ান নিয়া লোকজন খালি চিল্লাপাল্লা করে, অথচ এই ইনডিয়ার সেনের দল বাংলায় হাজার হাজার পেগডা পুড়াইয়া সেই কয়লা দিয়া দন্ত মাজিয়াছিল।

ইনডিয়ার প্রতি তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে মকসুদ বলেন, হাজার হাজার বছর আগে সেন রাজাদের আক্রমন দিয়া যা শুরু হয়েছিল, পাকিস্তান আমলে তা এক ভিন্ন রুপ ধারন করে। আমাদের যৌবন কালে ইনডিয়া সুকৌশলে সুচিত্রা সেন নামক আরেক সেনকে লেলাইয়া দেয়। তার মধুর মদির কটাক্ষে ঘায়েল হয়ে যৌবনের সেসব রাত্র কালে শান্তি মত ঘুম হত না। অজস্র কুলবালিশ সুচিত্রা সেন কর্তৃক সৃস্ট অশান্তির কবলে পড়িয়া নষ্ট করেছি। আমার পিতা আমায় একদিন আলটিমেটাম দিয়া বললেন, টেকা কি বলদের পুটু দিয়া বাইর হয় যে তুমায় সপ্তাহে একটা করিয়া শিমুল তুলার কুলবালিশ খরিদ করিয়া দিব রাশকেল? কেন আমায় সেদিন পিতার জুতা খাইতে হইয়াছিল? কেবল মাত্র সেন বংশের সুচিত্রা সেনের কারনে। সে ছিল পাকিস্তান আমলের গজব। আমার মত শত শত তৌহিদী যুবক তার কারনে নিজেকে কখনও নিজের হস্তে কখনও পিতার হস্তে তুলাধুনা করিয়া স্বাস্থ্য হারাইয়াছিল। তুলার দোকানী ছাড়া আর কারও কুন উপকার সুচিত্রা সেন করে নাই।

আসন্ন ঘুর্নিঝড় ‘মহাসেন’কে সেন রাজা ও সুচিত্রা সেনের তান্ডবের ধারাবাহিকতার অংশ ঘোষনা করে মকসুদ বলেন, এই ঝড় হিন্দু ঝড়, এই ঝড় ইনডিয়ার ঝড়। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ইহা ইনডিয়া ও বাকশালের যৌথ ষড়যন্ত্র। এ বেপারে বাকশালী সরকারের নিকট হতে প্রেস নোট দেখতে চাই।

ভারতের প্রধান মন্ত্রী মনমোহন সিংহকে উদ্দেশ করে মকসুদ বলেন, এখনও সময় আছে, মহাসেন নাম পরিবর্তন মহসিন রাখুন, ৯১% মুসলমানের দেশকে হিন্দু ঝড়ের হাত থেকে রক্ষা করুন। মুসলমান ঝড়ের আঘাতে লন্ডভন্ড হতে রাজি আছে, কিন্তু হিন্দু ঝড়ের বেআদবী সহ্য করব না।

ওয়াশিংটন হতে এক প্রতিক্রিয়ায় সদ্য গঠিত রাজনৈতিক দল বাবুনাগরিক শক্তির আমীর, বাংলাদেশের একমাত্র নোবেল বিজয়ী অর্থনীতীবীদ ও গ্রামীন বেংকের বিতাড়িত মালিক ইউনূস বাবুনগরী বলেন, মহাসেন বাকশালী সরকারের বের্থতার শাস্তি। আজ আমায় গ্রামীন বেংক হতে কানে ধরিয়া বাইর করিয়া না দিলে এইসব ঘুর্নিঝড় হইত না। ভাল হইছে ঝড় আসতেছে। শেখের বেটীর মুখ কালা করিয়া দে রে মহাসেন।

%d bloggers like this: